বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে জনগণকে ধোঁকা দেওয়া হচ্ছে—বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন মন্তব্যের বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের দেশে কিছু বুদ্ধিজীবী আছেন, তাঁরা বিভিন্ন সময়ে যদি এ ধরনের কথাবার্তা না বলেন, তাঁদের যে বুদ্ধি আছে, এটা তো জনগণ জানবে না। এ জন্যই তাঁরা কথাগুলো বলেন। আর সার্চ কমিটির মাধ্যমে গঠিত গত নির্বাচন কমিশনে বিএনপির ঘোরতর সমর্থকও একজন সেখানে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। সার্চ কমিটি যে সঠিকভাবে কাজ করে, নির্বাচন কমিশনের দিকে তাকালেই সেটি বোঝা যায়। এবারও সার্চ কমিটির মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে।’

বাংলাদেশে আর কখনো তত্ত্বাবধায়ক সরকারব্যবস্থা ফেরানো হবে না উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান সরকারই নির্বাচনকালীন সরকার হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে। আর নির্বাচন হবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে। বিশ্বের সব দেশে যা হয়, আমাদের দেশেও তাই হবে।’

সম্পাদক ফোরামের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম রতন, সদস্যসচিব ফারুক আহমেদ তালুকদার ও সদস্যদের মধ্যে দুলাল আহমেদ চৌধুরী, বেলায়েত হোসেন, আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া, নাঈমুল ইসলাম খান, মীর মনিরুজ্জামান, মফিজুর রহমান, রিমন মাহফুজ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন