default-image

সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত দেশে আবার আগুন–সন্ত্রাস করার পাঁয়তারা করছে। বিভিন্ন সময়ে তারা অনেক মানুষকে আগুনে পুড়িয়ে মেরেছে। কয়েক দিন আগেও ঢাকার কয়েকটি বাসে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যার চেষ্টা করে। এদের কোনোভাবেই প্রশ্রয় দেওয়া যাবে না। কেউ এ ধরনের সন্ত্রাস করতে চাইলে তাদের ধরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে তুলে দিতে হবে।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৩১ থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

সিভিল সার্জন সেলিম মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান জুয়েল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) গোলাম মোর্শেদ, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহ্ মো. আব্দুল কাদির প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক গাজী মোজাম্মেল হোসেন।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের ফিরিস্তি তুলে ধরে বলেন, ‘আমরা জনগণের শাসক নই, সেবক। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও নিজেকে সেবক হিসেবে মনে করেন। তাঁর দক্ষ নেতৃত্বের কারণে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে।’ প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, দেশে যখন সাত কোটি মানুষ ছিল তখন চরম খাদ্যাভাব ছিল, অর্থাভাব ছিল। কিন্তু জনসংখ্যা বেড়ে আজ ১৬ কোটি হওয়া সত্ত্বেও কোনো খাদ্যাভাব নেই, উপরন্তু, বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। করোনা পরিস্থিতির মতো ভয়াবহ দুর্যোগেও একটি মানুষ না খেয়ে থাকেনি। ভবিষ্যতেও কেউ না খেয়ে থাকবে না।

অনুষ্ঠানে বারহাট্টা উপজেলার সাতটি ইউনিয়নের দলীয় নেতা–কর্মী ছাড়াও স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে প্রতিমন্ত্রী উপজেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় যোগ দেন।

মন্তব্য পড়ুন 0