সারা দেশে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের ডাকা গতকাল সোমবারের হরতাল ঢিলেঢালাভাবে পালিত হয়েছে। তবে বিচ্ছিন্নভাবে কিছু এলাকায় সংঘর্ষ, ভাঙচুর ও আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ ও রাবার বুলেট ছুড়েছে।

বিএনপি-জামায়াত ও অঙ্গসংগঠনের অন্তত ১৩৫ নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশের গাড়িসহ ভাঙচুর করা হয়েছে ১৬টি গাড়ি। কক্সবাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত দুই হরতাল-সমর্থককে সাজা দিয়েছেন।

সিলেটে মহানগর বিএনপির নেতাকে গ্রেপ্তার করায় আজ মঙ্গলবার জেলায় আধা বেলা হরতালের ডাক দিয়েছে ২০-দলীয় জোট।

ঢাকার বাইরে প্রথম আলোনিজস্ব প্রতিবেদক, অফিস প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর:

 রাজশাহী: রাজশাহীতে হরতালকেন্দ্রিক ঘটনায় ৩৬ জনকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। র‍্যাব একটি ওয়ান শ্যুটারগান ও নয়টি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল সাড়ে নয়টার দিকে শালবাগান এলাকায় পেট্রলপাম্পের সামনে বোয়ালিয়া থানার সহকারী কমিশনারের (এসি) গাড়ি রাখা ছিল। পাশের গলি থেকে কয়েকজন হরতাল-সমর্থক ইটপাটকেল ছুড়ে গাড়ির কাচ ভেঙে পালিয়ে যান। এ ছাড়া নগরের রেলগেট, দড়িখরবনা ও হোসেনিগঞ্জ মোড়ে কয়েকটি অটোরিকশা ভাঙচুর করেন হরতাল-সমর্থকেরা। রেলগেট মোড়ে তাঁরা একটি হাতবোমা ফাটান।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ছাত্রশিবিরের কর্মীরা নগরের ফায়ার সার্ভিস মোড়ে রাস্তায় পেট্রল ঢেলে আগুন দেন। তাঁরা মিছিল নিয়ে বরেন্দ্র জাদুঘরের মোড়ের দিকে গেলে সেখানে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ ও পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। শিবিরের কর্মীরা একটি হাতবোমা ফাটান। পুলিশ রাবার বুলেট ছুড়ে তাঁদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

  হরতালের সমর্থনে বিএনপি ও জামায়াত এবং হরতালের বিপক্ষে মিছিল করেছে আওয়ামী লীগ।

সিলেট: সিলেট মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক শাহরিয়ার হোসেন চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করায় আজ সিলেট নগর ও জেলায় আধা বেলা হরতাল আহ্বান করেছে ২০-দলীয় জোট। গতকাল হরতালে পিকেটিং করার সময় শাহরিয়ার ও ছাত্রদলের দুই কর্মীকে আটক করে পুলিশ।

দুপুরে ২০-দলীয় জোট সংবাদ সম্মেলন করে হরতাল ঘোষণা করে। 

ময়মনসিংহ: পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল দুপুর পৌনে ১২টার দিকে শহরের গাঙ্গিনারপাড় থেকে শহর ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা হরতালবিরোধী একটি মিছিল নিয়ে নতুন বাজার এলাকায় আসেন। তখন হরি কিশোর রায় সড়কে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা অবস্থান করছিলেন। এ সময় ছাত্রলীগের মিছিল থেকে নেতা-কর্মীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে বিএনপির কর্মীদের ধাওয়া করলে দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়। ফাটানো হয় কমপক্ষে ১০টি ককটেল। তবে কেউ হতাহত হয়নি।

 পুলিশ জানায়, নাশকতার আশঙ্কায় গত রোববার দিবাগত রাতে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে ২২ জনকে আটক করা হয়।

 নীলফামারী: নীলফামারীতে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উর রহমানের নেতৃত্বে মিছিল হয়েছে। পরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ হয়। তবে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলা শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার কিশোরগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি শামীম হোসেনের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ভাঙচুর করেন হরতাল-সমর্থকেরা।

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া): সকালে সরাইল উপজেলা সদরের উপালিয়াপাড়া মোড়ে ২০ থেকে ২৫ জন কিশোর-যুবক অবস্থান নিয়ে ১০ থেকে ১২টি সিএনজিচালিত অটোরিকশা ভাঙচুর করেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবদুর রহমানের নেতৃত্বে হরতালের পক্ষে মিছিল সমাবেশ হয়।

সাতক্ষীরা: সাতক্ষীরায় হরতালের পক্ষে কোথাও মিছিল-সমাবেশ হয়নি। সাতক্ষীরার পুলিশ সুপারের দপ্তরের তথ্য কর্মকর্তা কামাল হোসেন জানান, নাশকতা এড়াতে রোববার রাতে আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জ শহরের অধিকাংশ দোকানপাট, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। শহরের হোসেনপুর এলাকা থেকে জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবদুর জব্বারকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ ছাড়া শহর থেকে যুবদলের আরও দুজন কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

হরতালের সমর্থনে কোথাও পিকেটিং করতে দেখা যায়নি।

কক্সবাজার: কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তোফায়েল আহমদ বলেন, দুপুর ১২টার দিকে শহরের কালুর দোকান এলাকায় ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক (টমটম গাড়ি) ভাঙচুরের সময় ছাত্রদলের কর্মী করিম তাজ (২৫) ও মো. মোজাম্মেলকে (১৯) আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করে পুলিশ। আদালত তাজকে ছয় মাসের সশ্রম এবং মোজাম্মেলকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

শহরে দুপুরের পর পিকেটারেরা সরে যান

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে বিএনপি ও জামায়াতের ২৩ নেতা-কর্মীকে আটক করা হয়েছে। এ ছাড়া বিভিন্ন মামলায় ৬৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

 সকাল আটটার দিকে জেলা বিএনপির সভাপতি হাফিজুর রহমান মোল্লার নেতৃত্বে শহরে মিছিল হয়েছে।

 গাজীপুর: সকাল আটটার দিকে গাজীপুরের টঙ্গীর চেরাগ আলী মার্কেটের বেক্সিমকো সড়ক এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে হরতালের সমর্থনে পিকেটারেরা মিছিল করে গাড়ি ভাঙচুর শুরু করেন। পুলিশ বাধা দিলে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া শুরু হয়। একপর্যায়ে পুলিশ কয়েকটি ফাঁকা গুলি ছোড়ে ও কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করে। এতে পিকেটারেরা পালিয়ে যান।

পাবনা: পাবনায় সকালে জেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয় থেকে মহিলা দল বিক্ষোভ মিছিল বের করে। তবে পুলিশের বাধায় তা পণ্ড হয়ে গেছে। এ ছাড়া আর কোনো মিছিল ও পিকেটিং হয়নি।

পুলিশ জানায়, নাশকতা সৃষ্টির চেষ্টার অভিযোগে রোববার রাতে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপি ও জামায়াতের ১৩ কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ছাড়া বিভিন্ন মামলার আসামি হিসেবে ৬৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গাইবান্ধা: বেলা ১১টার দিকে গাইবান্ধা-পলাশবাড়ী সড়কের ঠুঠিয়াপুকুর এলাকায় পিকেটিং করার সময় জামায়াত-শিবিরের চারজন কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। এ ছাড়া জেলার কোথাও সহিংসতার খবর পাওয়া যায়নি।

 লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরে নাশকতার আশঙ্কায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসানসহ ২৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল ভোরে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের মধ্যে বিভিন্ন মামলার আসামি আছেন।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন