লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি অলি আহমদ বলেছেন, বিরোধী দলকে ধ্বংস করে কখনো গণতন্ত্র সুসংহত বা টিকিয়ে রাখা সম্ভব নয়। কিন্তু সরকার বিরোধী দলের রাজনীতি ধ্বংসের পরিকল্পনা নিয়েই এগোচ্ছে।
গতকাল মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে অলি আহমদ এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘১৯৭১ সালে যুদ্ধ করেছিলাম বহুদলীয় গণতন্ত্রের জন্য। দেশে আজ গণতন্ত্র নেই বললেই চলে। একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে বিশ্বাস করি, প্রধানমন্ত্রী সব ভেদাভেদ ভুলে দেশের উন্নয়ন ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য আলোচনার উদ্যোগ গ্রহণ করবেন।’
বিবৃতিতে অলি আহমদ বলেন, গত দেড় মাসে ২০-দলীয় জোটের ২০ হাজারের বেশি নেতা-কর্মী গ্রেপ্তার হয়েছেন। খালেদা জিয়া ‘অঘোষিত অবরুদ্ধ’ অবস্থায় মানবেতর জীবনযাপন করছেন। সরকারি দলের অনেক নেতা খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অশোভন ব্যবহার করে রাজনীতিকে কলুষিত করছেন। মানুষ আগুনে পুড়ে মরছেন, গুপ্ত হত্যার শিকার হচ্ছেন। দেখামাত্র গুলির ভয়ে তাঁরা আতঙ্কে আছেন। কিছু সরকারি কর্মকর্তা রাজনৈতিক দায়িত্ব পালন করছেন এবং বিরোধী দলকে হুমকি-ধমকি দিচ্ছেন।
সাম্প্রতিক সহিংসতার বিষয়ে অলি আহমদ বিবৃতিতে বলেন, দেশে যখন আন্দোলন-সংগ্রাম চলে, তখন কিছু চিহ্নিত সন্ত্রাসী তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য ধ্বংসাত্মক কার্যক্রমে লিপ্ত হয়। তিনি বলেন, বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার মাধ্যমেই বিএনপির জন্ম হয়েছিল। বিএনপি কখনো অসাংবিধানিক-অনিয়মতান্ত্রিক বা জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িত ছিল না, বর্তমানেও নেই। সরকারবিরোধী আন্দোলন করা জঙ্গিবাদ হতে পারে না। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম কখনো সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হতে পারে না।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন