ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার সূত্র জানায়, হাজী মো. সেলিম প্যারোলে মুক্তির আবেদন করলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তা মঞ্জুর করে। সেই কাগজপত্র পৌঁছালে আজ দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল থেকে তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয়।
কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার সুভাষ কুমার ঘোষ প্রথম আলোকে বলেন, কারা তত্ত্বাবধানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হাজী মো. সেলিমকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত প্যারোলে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, আজ সকাল ৭টা ২০ মিনিটে রাজধানীর শ্যামলীতে নিজের বাসায় মারা যান সেলিমের ভাই কায়েস (৭২)। বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন তিনি। জুমার পর চকবাজার শাহী জামে মসজিদে তাঁর জানাজা হয়। আজিমপুর কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে। হাজী সেলিম তার বড় ভাইয়ের জানাজা ও দাফনে অংশ নেন।

উল্লেখ্য দুর্নীতি মামলায় ১০ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত হাজী সেলিমের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে গত ২২ মে তাঁকে কারাগারে পাঠায় আদালত। হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে ওইদিনই তাঁকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে নেওয়া হয়। এরপর থেকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের কারারক্ষীদের তত্ত্বাবধানে হাসপাতালেই চিকিৎসা চলছে হাজী মো. সেলিমের।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন