মেয়র পদে মেয়াদ কম বলে ভোটার কম : দীপু মনি

বিজ্ঞাপন
default-image

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে মেয়র পদে উপনির্বাচন হয়েছে। উপনির্বাচন বলে মেয়র পদের মেয়াদ এক বছরের কম—এ কারণে ভোটার উপস্থিতি কম ছিল। যেখানে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর ও কাউন্সিলর নির্বাচন হয়েছে, সেখানে ভোটার উপস্থিতি বেশি ছিল।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন উপনির্বাচন বিষয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন দীপু মনি।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আজ সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন উপনির্বাচনের ভোট আগের রাতে হয়ে গেছে। এখন শুধু আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হচ্ছে। দিন শেষে ফল ঘোষণা করা হবে।

বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভীর অভিযোগের বিষয়ে সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে দীপু মনি বলেন, তাঁদের এই মন্তব্যটা মনে হয় আগের রাতেই তৈরি হয়েছে। ঘটনা আর যা-ই হোক না কেন। তিনি বলেন, সংসদে বিরোধী দল আছে। বিরোধী দল উপনির্বাচনে অংশ নিয়েছে। এর বাইরে বিএনপি গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার বাইরে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ কারণে দেশের অগ্রগতিকে বাধা সৃষ্টি করতে একের পর এক চেষ্টা করছে দলটি।

উপনির্বাচনে জয়ী হওয়ার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে দীপু মনি বলেন, আশা করছি আতিকুল ইসলাম জয়ী হবেন। ঢাকাসহ সারা দেশে যে উন্নয়ন হয়েছে, সেই উন্নয়ন ও অগ্রগতি ধরে রাখার জন্য জনগণ ভোটপ্রয়োগ করবে। তিনি আরও বলেন, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। কোথাও কোনো অনভিপ্রেত ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। নির্বাচন কমিশনের খবর অনুযায়ী নির্বাচনে ৫০ শতাংশ ভোট পড়েছে।

নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের কারণে নির্বাচন কমিশন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে দলের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ দেন দীপু মনি। পাশাপাশি বিশিষ্ট সাংবাদিক ও প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের (পিআইবি) মহাপরিচালক মো. শাহ আলমগীরের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেন দীপু মনি। এ ছাড়া ভাষানটেক বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহত দুই শিশুর প্রতি শোক প্রকাশ করেন মন্ত্রী।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক, এ বি এম মোজাম্মেল হক, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ–বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন