default-image

সরকার ও নির্বাচন কমিশনকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন থেকে শিক্ষা নিতে বলেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের এবং যাঁরা নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব পালন করছেন, তাঁদের এই নির্বাচন (যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন) থেকে শিক্ষা নেওয়া উচিত। তাঁদের দেখা উচিত, নির্বাচন কমিশন কাকে বলে।

১২ নভেম্বর ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনের উপনির্বাচনে সরকার ও নির্বাচন কমিশনের ভূমিকার উল্লেখ করে মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ইসলাম এ কথা বলেন।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আজকে আমেরিকার নির্বাচনে সমস্ত চাপের মুখেও তারা কিন্তু অবিচল থেকেছে। অবিচল থেকে তারা জনগণের যে রায়, সেটাকে আপহোল্ড করেছে—এটাই গণতন্ত্র। গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান যদি না থাকে, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয় না।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘আজকে আওয়ামী লীগ বারবার ক্ষমতায় এসে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে দিয়েছে পরিকল্পিতভাবে। তারা আত্মম্ভরিতা করে, অহংকার করে, এমন এমন কথা বলে, যার এখন নাম বলতে চাই না, তাদেরও ছাড়িয়ে যায়। কিন্তু তাদের (সরকার) দেখা উচিত, কীভাবে আমেরিকায় সেই আত্মম্ভরিতার অবসান ঘটানো হয়েছে, জনগণ রুখে দাঁড়িয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা গণতন্ত্রের জন্য কাজ করছি, এ দেশ গণতন্ত্রের জন্য স্বাধীন হয়েছে। এই গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে ফিরে পাওয়ার জন্য আমাদের ৩৫ লাখ লোক আসামি, এক লাখের ওপরে মামলা, আমাদের বহু নেতা গুম হয়ে গেছেন, খুন হয়ে গেছেন। আমাদের আহ্বান থাকবে, দল-মতনির্বিশেষ সকল মানুষের এখন গণতন্ত্রের জন্য এগিয়ে আসা দরকার এবং এক কণ্ঠে আওয়াজ তোলা দরকার যে আমাদের অধিকার আমাদের ফিরিয়ে দাও।’

দুই উপনির্বাচনে নেতাদের হয়রানি
বিএনপির মহাসচিব ঢাকা ও সিরাজগঞ্জের উপনির্বাচনে দলের প্রার্থী এবং নেতা-কর্মীদের হয়রানির অভিযোগ করেন। সিরাজগঞ্জে বিএনপির প্রার্থী সেলিম রেজাকে তিন দিন বাড়িতে ঘিরে রাখার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সেখানে তো প্রভাবশালী প্রয়াত নাসিম (মোহাম্মদ নাসিম) সাহেবের ছেলে নির্বাচন করছেন। তাঁরা সেখানে কাউকে দাঁড়াতেই দিচ্ছেন না, এমন ত্রাসের রাজত্ব তাঁরা সৃষ্টি করেছেন যে কেউ সাহস পাচ্ছে না।

গতকাল সোমবার রাতেও ঢাকার উত্তরায় বিএনপির নেতাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন মির্জা ফখরুল।

তিনি বলেন, ‘সাহাবুদ্দিন সাগর আমাদের সভাপতি (দক্ষিণখান থানা), তাঁর বাড়িতে গিয়ে এক পুলিশ অফিসার পিস্তল ধরে তাঁর স্ত্রীকে বলেছেন, তাকে বলবেন সে যেন বাড়ি না আসে। এ রকম ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করেছে।’

সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা-১৮ আসনে উপনির্বাচনে ধানের শীষের প্রার্থী এস এম জাহাঙ্গীর হোসেনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ, সিরাজগঞ্জ-১ আসনের প্রার্থী সেলিম রেজার নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার বক্তব্য দেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0