বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতাল শুরু হয়েছে। আজ সোমবার সকাল ছয়টা থেকে শুরু হওয়া হরতালের মধ্যে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে বিভিন্ন ধরনের যানবাহন চলতে দেখা গেছে। তবে তা স্বাভাবিকের তুলনায় কম।

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, সায়েদাবাদ, মতিঝিল, গুলিস্তান, পল্টন, শাহবাগ, কারওয়ান বাজার এলাকা ঘুরে দেখা যায়, সকাল থেকে মিনিবাস চলাচল করছে। তবে অন্য অন্য দিনের তুলনায় তা কম। এ ছাড়া সড়কে সিএনজি অটোরিকশা, রিকশা চলাচল করছে। স্বাভাবিক আছে হিউম্যান হলারসহ অন্যান্য অন্যান্য ছোটখাটো যানবাহন চলাচল। রাজধানীর বাইরে থেকে ছেড়ে আসা দুরপাল্লার বাসগুলোকে রাজধানীতে ঢুকতে দেখা গেছে। এ ছাড়া দিনের বেলাও কিছু সড়কে ট্রাক চলাচল করছে।

সদরঘাট থেকে মিরপুর রুটের মিরপুর ইউনাইটেড পরিহনের হেলপার সোহাগের (২২)‍ ভাষ্য, ঘন কুয়াশার কারণে সবাই এখনো গাড়ি নিয়ে বের হয়নি। বেলা বাড়লে গাড়ি চলাচল বাড়বে।

রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ, আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ান সদস্যদের পাশাপাশি র‍্যাব সদস্যরা বিিভন্ন স্থানে টহল দিচ্ছে।

হরতালের মধ্যেই কর্মজীবী মানুষদের কাজে বের হতে দেখা গেছে। সকাল সাতটার দিকে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকার মো. হাফিজুর রহমানের তথ্য, তিনি গুলশানে তাঁর অফিসে যাবেন। হরতালের গাড়ি পেতে সমস্যা হতে পারে এ শঙ্কায় আগেই বের হয়েছেন।

ঢাকার বাইরে নারায়ণগঞ্জে ঢিলেঢালাভাবে হরতাল পালিত হচ্ছে। চাষাড়া, শিবু মার্কেট, জালকুড়ি, সাইনবোর্ড এলাকায় দেখা যায়, সড়কে মিনিবাস, সিএনজি অটোরিকশা, অটোরিকশা, ট্রাক চলাচল করছে। তবে ঢাকা -নারায়ণগঞ্জ সড়কপথে কাউন্টার সার্ভিস বাসের কাউন্টার সকাল সাতটা পর্যন্ত বন্ধ দেখা গেছে।

নারায়ণগঞ্জের চাষাড়া শহীদ মিনার এলাকায় দায়িত্বরত কর্মকর্তা সহকারি উপপরিদর্শক (এএসআই) রাজুর দাবি, নারায়ণগঞ্জের প্রতিটি গুরত্বপূর্ণ মোড়ে আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। এখন পর্যন্ত কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

হাসপাতাল ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, হরতালের আগে গতকাল রোববার রাত আটটার দিকে রাজধানীর মিরপুরের কাজীপাড়ায় একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় পেট্রল ঢেলে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় শামসুন্নাহার (৪৫), তাঁর ছেলে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র তানজিমুল হক (২৫) ও মেয়ে আনিকা আক্তার (১৮) দগ্ধ হন। তাঁদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে ও পুরানা পল্টনে একটি বাসে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা।

১৪৪ ধারা জারি করে ২৭ ডিসেম্বর গাজীপুরে বিএনপির চেয়ারপারসনের জনসভা ‘বানচাল’, দেশের বিভিন্ন স্থানে ওই দিনের বিক্ষোভ কর্মসূচিতে পুলিশের হয়রানি ও গ্রেপ্তার এবং বিএনপির নেতা খন্দকার মোশাররফ হোসেন, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, লুৎফুজ্জামান বাবর, আবদুস সালাম পিন্টু, নাসির উদ্দিন আহাম্মেদ পিন্টুসহ ২০-দলীয় জোটের নেতা-কর্মীদের মুক্তির দাবিতে এ হরতাল ডাকা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন