default-image

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির নেতা মিজানুর রহমান মিনু ও রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুসহ চার নেতার বিরুদ্ধে আজ বুধবার দুপুরে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। রাজশাহী মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সাইফুল ইসলাম এ আদেশ দেন।

ওই আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) ও রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক মুসাব্বিরুল ইসলাম প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বাদী হয়ে ১৬ মার্চ একই আদালতে মামলাটি করেছিলেন।

মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মিজানুর রহমান মিনু, দলের সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, রাজশাহীর সাবেক মেয়র ও রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল এবং সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হক মিলনকে আসামি করা হয়।  

বিজ্ঞাপন

মামলার আবেদনে বলা হয়, ২ মার্চ বিএনপি রাজশাহীতে বিভাগীয় সমাবেশ করে। মহানগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হকের সঞ্চালনায় সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বিএনপির এই চার নেতা রাষ্ট্রদ্রোহমূলক কথা বলেন। তাঁরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারকে উৎখাতের হুমকি দেন। মিজানুর রহমান মিনুকে জাতির সামনে ক্ষমা চাওয়ার জন্য ৭২ ঘণ্টা সময়সীমা বেঁধে দিয়েছিল আওয়ামী লীগ। ৭২ ঘণ্টা পর তিনি গণমাধ্যমে একটি বিবৃতি পাঠিয়ে বলেন, ‘আমার বক্তব্যের জন্য যাঁরা ব্যথিত হয়েছেন, মর্মাহত হয়েছেন, আমি তাঁদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করছি।’ কিন্তু ক্ষমা না চাওয়ায় আওয়ামী লীগ মামলা করার সিদ্ধান্ত নেয়।

মামলা হলে বিচারক সাইফুল ইসলাম ৩১ মার্চের মধ্যে মামলার তথ্য–উপাত্ত সংগ্রহ করে আদালতে প্রতিবেদন দিতে রাজশাহী নগরের রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) নির্দেশ দেন। ওসি আজ দুপুরে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। এরপর এই আদেশ দেওয়া হয়।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন