বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দুর্ঘটনাটিকে দুঃখজনক বলেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। নিহত ব্যক্তিদের আত্মার শান্তি কামনা করেন তিনি। অগ্নিকাণ্ডে আহত ব্যক্তিদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এটি দুর্ঘটনা না নাশকতা, সেটি তদন্তে বেরিয়ে আসবে। এরপর কেউ দোষী সাব্যস্ত হলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদর রহমান মান্নার দেওয়া বক্তব্যের সমালোচনা করেন হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, তাঁরা যেসব বক্তব্য দিয়েছেন, সেগুলো তাঁদের রাজনৈতিক দেউলিয়াত্ব থেকেই বলছেন। সবকিছুর সঙ্গে রাজনীতি নিয়ে আসা অবান্তর বলে মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী।

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বাংলাদেশে বেসরকারি টেলিভিশনগুলো যাঁরা পরিচালনা করছেন এবং প্রথিতযশা যেসব টিভি সাংবাদিক রয়েছেন, তাঁদের অনেকেরই হাতেখড়ি বাংলাদেশ টেলিভিশনে। তাই বিটিভি হচ্ছে টেলিভিশন চ্যানেলের আঁতুড়ঘর। এখন বিটিভির চারটি চ্যানেল সম্প্রচারে আছে এবং আগামী সংসদ নির্বাচনের আগেই আমরা আরও ছয়টি চ্যানেল চালু করতে যাচ্ছি। বিটিভি, বিটিভি চট্টগ্রাম এবং সংসদ বিটিভি—এ তিন টেরেস্ট্রিয়াল চ্যানেল কেব্‌ল নেটওয়ার্ক ছাড়া এবং কেব্‌ল নেটওয়ার্কেও সারা দেশে সবাই দেখতে পায়। একই সঙ্গে মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে সারা বিশ্বে সবাই দেখতে পাচ্ছে।’

বাংলাদেশ টেলিভিশনের ৫৮তম বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে বিটিভি ভবনে বঙ্গবন্ধু কর্নার, রংতুলিতে বঙ্গবন্ধু চিত্রকর্ম ও বিটিভির এইচডি সম্প্রচার কার্যক্রম উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক সোহরাব হোসেনের সভাপতিত্বে তথ্য ও সম্প্রচারসচিব মো. মকবুল হোসেন বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন। মন্ত্রণালয়সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তর প্রধান, বিটিভির সাবেক মহাপরিচালক ম হামিদ, বেসরকারি টেলিভিশনগুলোর পরিচালকেরা ও দেশবরেণ্য শিল্পীরা অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন