default-image

বিএনপির একটি প্রতিনিধিদল আজ শনিবার সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে যাচ্ছে। সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার পর তারা সেখানে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করবে। সকালে ঢাকা থেকে প্রতিনিধিদলটি রওনা দিয়েছে।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী নিতাই রায়চৌধুরীর নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলে আছেন বিএনপি নেতা গৌতম চক্রবর্তী, নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের সদস্যসচিব নিপুণ রায় চৌধুরী প্রমুখ।

সকালে ঢাকা থেকে প্রতিনিধিদলটি রওনা দিয়েছে। নিপুণ রায় চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, ‘দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে আমরা নির্যাতিত মানুষের পাশে দাঁড়াতেই সেখানে যাচ্ছি। দুপুর নাগাদ আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছাব।’

বিজ্ঞাপন

নোয়াগাঁওয়ে হিন্দুধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘরে গত বুধবার হামলা ও লুটপাটের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে গতকাল বৃহস্পতিবার বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেন, ঐক্যবদ্ধ জনগণের প্রবল সাহসের কাছে কখনোই কোনো অশুভ শক্তির উত্থান সম্ভব নয়। এ দেশের সব সম্প্রদায়কে যেকোনো উসকানির মুখে বিভ্রান্ত না হয়ে সাম্প্রদায়িক ঐক্য বিনষ্টকারী দুষ্কৃতকারীদের বিরুদ্ধে এখনই প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। যারা সংখ্যালঘুদের ওপর নির্মম হামলা চালাচ্ছে, তারা মানবজাতির শত্রু। তিনি হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির জোর দাবি জানান।

গত সোমবার দিরাই উপজেলা শহরে আয়োজিত এক সমাবেশে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা জুনাইদ বাবুনগরী ও মাওলানা মামুনুল হক বক্তব্য দেন। পরে মাওলানা মামুনুল হককে নিয়ে ফেসবুকে নোয়াগাঁও গ্রামের ঝুমন দাস (২৮) আপত্তিকর পোস্ট দেন বলে অভিযোগ ওঠে। এতে ওই এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। গত মঙ্গলবার রাতে নোয়াগাঁও গ্রামের লোকজন ঝুমনকে পুলিশে দেন। এর জেরে পরের দিন বুধবার সকালে আশপাশের শাল্লা উপজেলার কাশিপুর, দিরাই উপজেলার নাসনি, সন্তোষপুর ও চণ্ডিপুর গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ লাঠিসোঁটা নিয়ে নোয়াগাঁও গ্রামের পাশে অবস্থান নেন। পরে সেখান থেকে শতাধিক লোক লাঠিসোঁটা নিয়ে নোয়াগাঁও গ্রামে গিয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের বসতবাড়ি ও মন্দিরে হামলা চালান। এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার শাল্লা থানায় দুটি মামলা হয়েছে। নোয়াগাঁও গ্রামে সংখ্যালঘুদের বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনায় করা মামলার প্রধান আসামি শহিদুল ইসলাম ওরফে স্বাধীন মিয়াকে (৫০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন