default-image

জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি ও শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদের (স্কপ) যুগ্ম সমন্বয়ক ফজলুল হক মন্টু মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। আজ শুক্রবার ভোররাত চারটায় রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। পরিবারের বরাত দিয়ে সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব প্রথম আলোকে এ তথ্য জানান।

আহসান হাবিব বলেন, আজ জুমার নামাজ শেষে রায়েরবাজার বধ্যভূমিতে তাঁর বিদেহী আত্মার প্রতি সম্মান জানানো হবে।

বিজ্ঞাপন

ফজলুল হকের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, শ্রমজীবী মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় জাতীয় শ্রমিক লীগের প্রয়াত সভাপতি ফজলুল হক মন্টুর অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

ফজলুল হকের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এক শোকবার্তায় কাদের বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক সারা জীবন শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম করেছেন।

শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদের স্কপ ও এর অন্তর্ভুক্ত ১১টি সংগঠনের নেতারা তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেন।

সকালে শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদের (স্কপ) শোকবার্তায় বলা হয়, করোনা মহামারিতে দেশের শ্রমিকেরা চরম কষ্টের মধ্যে জীবন যাপন করছেন। সেই সময় ন্যায্য মজুরি, চাকরির নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, আন্তর্জাতিক শ্রম মানদণ্ডগুলোর বাস্তবায়নসহ শ্রমিকদের দাবিগুলোকে উচ্চকিত করার বলিষ্ঠ কণ্ঠ ফজলুল হকের আকস্মিক মৃত্যু দেশের শ্রমিক আন্দোলনের অপূরণীয় ক্ষতি করল।

বাংলাদেশের শ্রমিক আন্দোলন দীর্ঘদিনের এক বিশ্বস্ত-লড়াকু নেতাকে হারাল।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0