default-image

সংখ্যালঘুদের বাড়িঘরে হামলার ঘটনায় বিএনপিকে অভিযুক্ত করে বক্তব্য দেওয়া আওয়ামী লীগের মজ্জাগত স্বভাব বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ঠিক রাখতে প্রশাসন যখন ব্যর্থ হচ্ছে, তখন তারা বিএনপিকে দায়ী করার চেষ্টা করে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সব সময় আওয়ামী লীগের আমলে বিনষ্ট হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

ফখরুল বলেন, ‘আমি এ কথা জোর দিয়ে বলতে চাই, একটা সার্ভে করুন, কতজন হিন্দু সম্প্রদায়ের সম্পত্তি, বাড়ি-ঘর দখল করে আছে কারা? বেশির ভাগই দেখবেন আওয়ামী লীগের লোকেরা দখল করে আছেন, এটা হচ্ছে বাস্তবতা। অথচ অবলীলায় তারা এই মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছে।’

শনিবার বিকেলে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে বিএনপির সাবেক মহাসচিব কে এম ওবায়দুর রহমানের ১৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

সুনামগঞ্জের শাল্লায় সংখ্যালঘুদের বাড়িঘরে হামলার ঘটনায় স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও যুবলীগের নেতা জড়িত বলেও উল্লেখ করেন ফখরুল।

অনুষ্ঠানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, স্বাধীনতা এ দেশের সব মানুষের। আজ শুধু বিদেশিদের এনে সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছে সরকার, দেশের মানুষকে পালন করতে দিচ্ছে না। এটা সুবর্ণজয়ন্তী পালন হয় না।

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাহজাহান ওমর, শামসুজ্জামান, দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমান উল্লাহ আমান, আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন, খায়রুল কবির, কে এম ওবায়দুর রহমানের মেয়ে বি​এনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ প্রমুখ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন