সচেতন না হলে আমাদের কেউ বাঁচাতে পারবে না: কাদের

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের
ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, সংক্রমণ ভয়াবহ আকারে ছড়িয়ে পড়েছে শহর থেকে গ্রামে। বাড়ছে অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু। নিজের সুরক্ষায় সচেতন থাকার পাশাপাশি অন্ধ সমালোচনার বিপরীতে সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে সবার এগিয়ে আসা প্রয়োজন।

ওবায়দুল কাদের বলেছেন, করোনা মহামারিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের অর্থনীতি যখন পর্যুদস্ত, তখন শেখ হাসিনার দূরদর্শী ও দক্ষ নেতৃত্বে দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বিস্ময় জাগিয়েছে।

আজ বুধবার সকালে তাঁর সরকারি বাসভবনে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আয়োজিত নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

সংকট মোকাবিলায় সবার সহযোগিতার মনোভাব থাকা জরুরি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘অপ্রয়োজনে বা সামান্য প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হবেন না। নিজের সুরক্ষার জন্য নিজে সচেতন না হলে আমাদের কেউই বাঁচাতে পারবে না। সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।’

একটি মহল অবিরাম সরকারের অন্ধ সমালোচনা করে যাচ্ছে উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, রাজনীতিবিদদের একটি অংশের পাশাপাশি গণমাধ্যমের একটি অংশও সরকারের দোষ খুঁজে বেড়াচ্ছে। তারা সরকারের ভালো কিছু দেখতে পায় না। দেখতে পায় না কোনো সাফল্য।

শেখ হাসিনা সরকার গঠনমূলক সমালোচনাকে স্বাগত জানায় জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, সমালোচনা থেকে শিক্ষা গ্রহণ করতে চায়, কিন্তু ঢালাও সমালোচনা এবং উদ্দেশ্যমূলক অপপ্রচার সরকারের কর্ম–উদ্যমকে ব্যাহত করে। তিনি বলেন, সংকটে, দুর্যোগে দলমত–নির্বিশেষে সবারই দায়িত্বশীল হতে হয়। সরকারবিরোধী রাজনীতি যাঁরা করছেন, জনগণকে সচেতন করাও তাঁদের দায়িত্ব। যদি তাঁরা জনগণের জন্য রাজনীতি করেন।

অদৃশ্য শত্রু করোনা মহামারি থেকে দেশ ও জনগণের সুরক্ষায় সবাইকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, করোনাকালে রাজনীতি হচ্ছে মানুষকে বাঁচানো। কিন্তু বিএনপি মিথ্যাচার করে যাচ্ছে। করোনার উচ্চমাত্রার সংক্রমণকালেও বিএনপি অসহায় মানুষের পাশে না থেকে পুরোনো রেকর্ড বাজিয়ে যাচ্ছে।