বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জাতির উন্নয়ন-অগ্রগতি যদি অব্যাহত রাখতে হয়, দেশকে যদি স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছে দিতে হয়, হতাশাগ্রস্ত মানুষ দিয়ে তা সম্ভব নয়। সব সময় খারাপ সংবাদ পরিবেশন করলে মানুষ হতাশাগ্রস্তই হবে এবং হতাশ মানুষ দিয়ে জাতির উন্নয়ন সম্ভব নয়। কোনো নেতিবাচক খবরের যদি সংবাদমূল্য থাকে, তবে তা অবশ্যই প্রকাশিত হবে। কিন্তু একই সঙ্গে আজকে বাংলাদেশ যে পাকিস্তান ও ভারতকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যাচ্ছে, সে অগ্রগতির কথাও মানুষকে জানানো অত্যন্ত প্রয়োজন।’

রাষ্ট্রপতির সংলাপের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন গঠন করা নিয়ে বিএনপির মন্তব্যের বিষয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘গতবারও রাষ্ট্রপতির সংলাপের মাধ্যমেই নির্বাচন কমিশন গঠিত হয়েছে। কমিশনের অনেক সিদ্ধান্তের সঙ্গে সময়–সময় দ্বিমত পোষণকারী এবং কেউ কেউ যাঁকে বিএনপিপন্থী বলেন, সেই মাহবুব তালুকদারও সংলাপের মাধ্যমেই নির্বাচন কমিশনার হিসেবে স্থান পেয়েছেন। সেটিই প্রমাণ করে যে এ পদ্ধতিতে নির্বাচন কমিশন গঠন ঠিক ছিল এবং সংলাপ কার্যকর।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, এবারও নির্বাচন কমিশন গঠনের লক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যে সংলাপ করছেন, গণতান্ত্রিক রীতিনীতিকে সংহত করার জন্যই তা করা হচ্ছে। অনেক গণতান্ত্রিক দেশ আছে, সেখানে নির্বাচন কমিশন গঠনের আগে এ ধরনের সংলাপ হয় না।

বিএনপি সবকিছুকে ‘না’ বলার রাজনীতি থেকে সরে আসবে বলে এ সময় আশা প্রকাশ করেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘তাদের কোনো বিষয়ে আপত্তি থাকলে সেটিও তারা সংলাপে অংশ নিয়ে রাষ্ট্রপতিকে বলে আসতে পারবে। এটিই গণতান্ত্রিক রীতিনীতি। তারা যেটা রাজপথে বলছে, সেটিও তারা সংলাপে বলতে পারে।’

নারীর ক্ষমতায়নের কারণে দেশ এত দূর এগিয়েছে

এদিকে আজ সন্ধ্যায় রাজধানীর বনানীতে ঢাকা শেরাটন বলরুমে বেসরকারি সংস্থা ‘উইমেন লিডারশিপ করপোরেশন’ আয়োজিত ‘লাইফস্টাইল অ্যান্ড ব্রাইডাল ইন্ডাস্ট্রি অ্যাওয়ার্ড অ্যান্ড এক্সপো ২০২১-ম্যাজেস্টিক অ্যাফেয়ার’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন হাছান মাহমুদ।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, নারীর ক্ষমতায়নের কারণে আজ দেশ এত দূর এগিয়েছে। শেখ হাসিনার দূরদর্শী চিন্তার কারণেই দেশে নারীর ক্ষমতায়ন ঘটেছে। দেশকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছাতে উদ্যোক্তা হিসেবে নারীদের এগিয়ে আসার বিকল্প নেই।
মারিয়া মৃত্তিক, নুসরাত চৌধুরী, পারসা ফাতেমা, নবী ইসমাইল প্রমুখ নারী উদ্যোক্তা অনুষ্ঠানে তাঁদের সাফল্যের কথা তুলে ধরেন। আয়োজকদের পক্ষে লাইফস্টাইল ও বিবাহসজ্জা শিল্প উদ্যোক্তাদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন হাছান মাহমুদ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন