default-image

করোনার টিকা নিয়ে সরকার দুর্নীতি করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ২ ডলার ৩৩ সেন্ট দিয়ে কেনা টিকা সরকার চার ডলার দিয়ে কিনছে। সেখানেও মধ্যস্বত্বভোগী। তাদের নিজস্ব একজন সুবিধাভোগীকে তারা সেই দায়িত্ব অর্পণ করেছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে ‘স্বাস্থ্য খাত ও প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান’ শীর্ষক প্রামাণ্যচিত্রের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল ইসলাম এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকারের হাতে স্বাস্থ্য খাত ধ্বংস হয়ে গেছে। প্রতিটি ক্ষেত্রে এখানে একমাত্র লক্ষ্য হচ্ছে দুর্নীতি। এ কারণে সাধারণ মানুষ তাদের সাংবিধানিক অধিকার অনুযায়ী স্বাস্থ্যসেবা পাচ্ছে না।

জিয়াউর রহমানের সরকারের আমলে স্বাস্থ্য খাতসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের অবদান তুলে ধরে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘স্বাধীনতার যে সুবর্ণজয়ন্তী আমরা পালন করতে যাচ্ছি, সেই জয়ন্তীতে আমরা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানকে সবচেয়ে বড় ফোকাস পয়েন্টে নিয়ে আসার চেষ্টা করব এবং তাঁর অবদানগুলো নতুন প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দিতে হবে।’

বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রী কেন টিকা নিলেন না

অনুষ্ঠানে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউশন থেকে আনা করোনার টিকার কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি বলেন, ভারতও এর কার্যকরিতা নিয়ে সংশয়ের কথা বলেছে। এতই যদি হয়, তাহলে কেন প্রধানমন্ত্রী নিতে (টিকা) পারলেন না? ওবায়দুল কাদের নিতে পারলেন না? কেন একজন নার্সকে দেওয়া হলো?
বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সিরাজউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আবদুল কুদ্দুস, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, বিএনপির স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন