default-image

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সরকারের রাষ্ট্রযন্ত্র থেকে যে দুর্গন্ধ বের হচ্ছে, তা দেশ–বিদেশে ছড়িয়ে পড়েছে। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় সাজা দেওয়ার প্রতিবাদে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির উদ্যোগে এক বিক্ষোভ মিছিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিক্ষোভ মিছিলটি রাজধানীর সুবাস্তু টাওয়ারের সামনে থেকে শুরু হয়ে বাড্ডা লিংক রোডের সামনে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ব্যর্থ রাষ্ট্রের ভয়াবহ ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে সরকার দেশের জনপ্রিয় জননেতা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় সাজা প্রদান করেছে। এটি সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তিনি আরও বলেন, ‘এই সরকারের আর কোথাও নিজেদের মুখ দেখাবার জো নেই।’

বিজ্ঞাপন

অবিলম্বে তারেক রহমানের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে সাজা প্রত্যাহার করার দাবি জানান বিএনপির এই নেতা।

বিএনপির এই শীর্ষ নেতা অভিযোগ করে বলেন, ‘সরকারের দেশের মাটিতে পা রাখার অবস্থা নেই। চারদিক থেকে ব্যর্থ হয়ে সরকার জিয়া পরিবারকে টার্গেট করে আবারও মিথ্যা মামলা দিয়ে এবং নানা ধরনের কুৎসা রটনা করে নিজেরা মনে করছে পার পেয়ে যাবে। কিন্তু জনগণের কাছে ইতিমধ্যেই এই আওয়ামী সরকার গণধিক্কৃত হয়ে গেছে। সরকারের ক্ষমতায় থাকার আর কোনো ভিত্তি নেই। যেকোনো মুহূর্তে এই সরকারের পতন ঘটবে।’

এ সময় ঢাকা মহাগর উত্তর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি মুন্সি বজলুল বাসিত আঞ্জু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলিম নকিসহ বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা–কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি করার মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড, ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

গতকাল বেলা ১১টার দিকে নড়াইলের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দ্বিতীয় আদালতের বিচারক আমাতুল মোর্শেদা ওই রায় দেন।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন