বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের দ্রব্যমূল্য পরিস্থিতি তুলে ধরে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেন, যুদ্ধের কারণে পুরো বিশ্ব অস্থিতিশীল হয়ে গেছে এবং সর্বত্র দ্রব্যমূল্যে অস্থিতিশীলতা বিরাজ করছে। যুক্তরাজ্যে অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের দাম বেড়েছে ২৩ শতাংশ। ইউরোপে ভোজ্যতেলের দাম বেড়েছে ৭০ শতাংশ। এনার্জি প্রাইস (বিদ্যুৎসহ গৃহস্থালি জ্বালানির দাম) বেড়েছে ৫০ শতাংশ। যুক্তরাষ্ট্রে মোটর‍যানের গ্যাস ও তেলের দাম ৪০ শতাংশ বেড়েছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, শুধু দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিই নয়, সরবরাহের অভাবে ইউরোপের শপিং মলগুলোতে ঠিকমতো খাদ্যপণ্য পাওয়া যাচ্ছে না। সেখানে পরিবহন খরচও বেড়ে গেছে। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে দেশে পরিবহন খরচ বাড়েনি, বিদ্যুতের দামও বাড়েনি।

ইফতার–পূর্ব সভায় সভাপতিত্ব করেন রাঙ্গুনিয়া সমিতির সভাপতি ওবায়দুল কাদের, ইফতার ও দোয়া মাহফিল সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম। এ ছাড়া বক্তব্য দেন সহসভাপতি আবু তাহের, নুরুল হক প্রমুখ।

জনগণের সরাসরি অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা টেকসই উন্নয়নের পূর্বশর্ত: তথ্যসচিব
দেশের উন্নয়নকাজে জনগণ যাতে আরও সম্পৃক্ত হয়, সেই লক্ষ্যে কাজ করতে তথ্য ক্যাডারের কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারসচিব মো. মকবুল হোসেন।

রোববার সন্ধ্যায় রাজধানীর কাকরাইলে তথ্য ভবন মিলনায়তনে বিসিএস ইনফরমেশন অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত ইফতার ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

তথ্যসচিব বলেন, উন্নয়ন কার্যক্রমের প্রতি আস্থা সৃষ্টি এবং জনগণের সরাসরি অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা টেকসই উন্নয়নের পূর্বশর্ত।

জনগণের তথ্যসেবা নিশ্চিত করতে বিসিএস তথ্য কাডারের কর্মকর্তাদের আরও দক্ষ ও প্রযুক্তিজ্ঞানসম্পন্ন করার লক্ষ্যে দেশ-বিদেশে প্রশিক্ষণ কার্যক্রম বৃদ্ধি করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ইফতার ও আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বিসিএস ইনফরমেশন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক স ম গোলাম কিবরিয়া। সংগঠনের মহাসচিব রাষ্ট্রপতির উপপ্রেস সচিব মুন্সী জালাল উদ্দিনের সঞ্চালনায় তথ্য ক্যাডারের অবসরপ্রাপ্ত ও বর্তমান সদস্যরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

তথ্য ক্যাডারের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের মধ্যে সৈয়দ সুজাউদ্দীন আহমেদ, মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন, এ এইচ এম আবদুল্লাহ, সুরথ কুমার সরকার, মাহফুজুর রহমান; প্রধান তথ্য কর্মকর্তা মো. শাহেনুর মিয়া; বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের মহাপরিচালক মো. নিজামূল কবীর; গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. জসীম উদ্দিন; চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ; জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ফায়জুল হক প্রমুখ ইফতার অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন