বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ সময় বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, ‘বাঙালি জাতির মুক্তির জন্য বঙ্গবন্ধু জীবনের শ্রেষ্ঠ সময়গুলো জেলে কাটিয়েছেন। তিনি সর্বশক্তি দিয়ে বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন বলেই তাঁর নেতৃত্বে আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছি। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি কখনো থেমে থাকেনি।’

পরাজিত শক্তি স্বাধীনতার মূল্যবোধকে ধ্বংসের চেষ্টা চালাচ্ছে উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে একটি ব্যর্থ রাষ্ট্র হিসেবে প্রমাণ করার জন্য তারা আজও কাজ করে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধু একটি স্বাধীন–সার্বভৌম রাষ্ট্র ও অর্থনৈতিক মুক্তির স্বপ্ন দেখেছিলেন। আজ তাঁরই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য দিন–রাত কাজ করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে, বিশ্ববাসী বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করছে। আজ বাংলাদেশ সব অর্থনৈতিক সূচকে পাকিস্তানের থেকে এগিয়ে।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য রাশিদ আসকারী। সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ ও বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। সমিতির সাধারণ সম্পাদক এবং রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মো. আবু কালাম সিদ্দিক সেমিনারে বক্তৃতা দেন।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন