default-image

দেশের বিশিষ্ট ১১ নাগরিকের বিবৃতিকে ‘গণবিরোধী’ দাবি করে পাল্টাবিবৃতি দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম। আজ বুধবার সংগঠনটির সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী বিভিন্ন গণমাধ্যমে এই বিবৃতি পাঠান।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরের প্রতিবাদে হেফাজতে ইসলামের কর্মসূচি ঘিরে সংঘাত–সহিংসতায় ক্ষোভ জানিয়ে গতকাল বিবৃতি দিয়েছিলেন আবদুল গাফ্ফার চৌধুরীসহ ১১ নাগরিক। তাঁরা হেফাজতের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিতে সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন

পাল্টাবিবৃতিতে হেফাজত বলেছে, ‘দেশপ্রেমিক ও ধর্মপ্রাণ প্রতিবাদী জনতার আন্দোলনের বিরুদ্ধে একদল গণবিচ্ছিন্ন তথাকথিত বিশিষ্ট নাগরিকের বিবৃতিকে আমরা অমানবিক, উসকানিমূলক ও গণবিরোধী বলে সাব্যস্ত করছি। এই বিবৃতি স্বৈরতান্ত্রিক ফ্যাসিবাদ ও আধিপত্যবাদের নির্লজ্জ দালালির প্রমাণ বহন করে। পুলিশের গুলিতে হত্যাকাণ্ডের নিন্দা না জানিয়ে একতরফাভাবে প্রতিবাদী জনতার গণপ্রতিরোধকে আপনারা তথাকথিত “তাণ্ডব” আখ্যা দিয়ে গণবিরোধী অবস্থান নিয়েছেন।’

সহিংসতায় নিহত ব্যক্তিদের জন্য কোনো ধরনের মানবিক সমবেদনা ১১ নাগরিকের বিবৃতিতে না দেখে ক্ষোভ জানিয়ে আজিজুল হক বলেন, ‘আপনারা বিবেক–বুদ্ধি জলাঞ্জলি দিয়ে দালালির নজরানা পেশ করতে প্রতিবাদী ধর্মপ্রাণ গণমানুষের ওপর “সর্বশক্তি প্রয়োগে”র আহ্বান জানিয়ে প্রকারান্তরে জালিম ক্ষমতাসীনদের মানুষ হত্যায় উৎসাহ দিয়েছেন।’

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন