default-image

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, রাজনীতি করতে গেলে খুব ঘনিষ্ঠ মানুষও বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে যেতে পারে। এটা পৃথিবীর ইতিহাসে সব সময় ছিল এবং আছে।

আজ রোববার দুপুরে বনানীর কার্যালয়ে জামালপুর জেলার জেপি (মঞ্জুর) ও বিজেপির (নাজিউর) কয়েকজন আইনজীবীর জাতীয় পার্টিতে যোগদান অনুষ্ঠানে এরিক এরশাদ ও বিদিশা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে জি এম কাদের এ কথা বলেন।

এরশাদের ছোট ছেলে শাহতা জারাব এরিকের দেখভাল নিয়ে মা বিদিশা তাঁর চাচা জি এম কাদেরকে জড়িয়ে গত কয়েক দিনে বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ ও পাল্টাপাল্টি বক্তব্য সামনে এসেছে।

জি এম কাদের এসব অভিযোগের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, ‘আমি কাঁদা ছোড়াছুড়ি করছি না, আমি রাজনীতি করি। রাজনীতি করতে গেলে শতভাগ মানুষের সমর্থন পাওয়া যায় না। রাজনীতি করতে গেলে অনেক সময় বাইরের মানুষও আমার জন্য জীবন দেবে আবার খুব ক্লোজ মানুষও আমার বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে যেতে পারে। এটা পৃথিবীর ইতিহাসে সব সময় ছিল এবং আছে। আমাকে নিয়ে কে কী বলল, তা নিয়ে ভীষণভাবে মগ্ন থাকলে, দেশের জন্য-জাতির জন্য কাজ করা আমার সম্ভব হবে না।’

জাপার চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমি সত্য ও ন্যায়ের পথে থেকে দেশ ও মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছি, দেশের মানুষও আমাকে সেভাবেই গ্রহণ করেছে আশা করছি। সাধারণভাবে ভালো কাজ করতে গেলে কিছু মানুষ বাধা সৃষ্টি করবে, সেগুলো আমরা যথাযথভাবে নিষ্পত্তি করব।’

জি এম কাদের দাবি করেন, দেশের তিনটি প্রধান রাজনৈতিক দলের মধ্যে দেশের মানুষ এখন জাতীয় পার্টির ওপরই আস্থা রাখছে। সাধারণ মানুষের কাছে জাতীয় পার্টিই আগামী দিনের সম্ভাবনাময় বিকল্প শক্তি। তিনি বলেন, ‘যারা বিগত দিনে জাতীয় পার্টি ছেড়ে গেছে, তারা প্রত্যাশিত রাজনীতি না পেয়ে আবারও পার্টিতে ফিরে আসছে। আমরা গণমানুষের স্বার্থে কর্মসূচি দিয়ে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জন করব। পল্লিবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের স্বপ্নের নতুন বাংলাদেশ গড়ব।’

যোগদান অনুষ্ঠানে জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0