'১২ ডিসেম্বর খালেদার মুক্তি না হলে কী হবে কেউ জানে না'

বিজ্ঞাপন
default-image

‘বাংলাদেশে এখন কোনো গণতন্ত্র নেই। বাংলাদেশকে বাঁচাতে এবং গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে খালেদা জিয়ার বিকল্প নেই। ১২ ডিসেম্বর খালেদা জিয়ার মুক্তি না হলে দেশে কী হবে কেউ জানে না।’

রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন আজ শনিবার এক সমাবেশে এ কথা বলেন। আজ বেলা ১১টার দিকে রাজশাহী নগরের মালোপাড়ায় বিএনপির কার্যালয়ের সামনে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে মহানগর ও জেলা যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

মোসাদ্দেক হোসেন বলেন, এই সরকার ইচ্ছাকৃতভাবে খালেদা জিয়ার মেডিকেল রিপোর্ট আদালতে উপস্থাপন করতে দেয়নি। পুনরায় তারিখ পিছিয়ে চলতি মাসের ১২ তারিখ করেছেন আদালত। এই ১২ তারিখে তাঁকে মুক্তি দেওয়া না হলে দেশে কী ঘটবে, তা কেউ জানে না।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হক বলেন, হঠকারী সিদ্ধান্তের মাধ্যমে এই ফ্যাসিস্ট সরকার খালেদা জিয়াকে প্রায় দুই বছর ধরে কারাগারে রেখেছে। তিনি মারাত্মক অসুস্থ হওয়া সত্ত্বেও জামিন দেওয়া হচ্ছে না।

শুরুতে বিএনপির নেতা-কর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল শুরু করলে পুলিশ বাধা দেয়। পরে তাঁরা কার্যালয়ের সামনেই সমাবেশ করেন। সভা পরিচালনা করেন মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন অর রশিদ, জেলা যুবদলের সভাপতি মোজাদ্দেদ জামানী ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুল আলম।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন