অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে হেডের চোটের ব্যাপারে বলেছেন, ‘সে সাধারণত যেখানে ফিল্ডিং করে, সেখানে অনেক দৌড়াতে হয়। সে কারণেই একটু বেশি সতর্ক আমরা। আউটফিল্ডে ফিল্ডিং করলে তাঁকে অনেক কিলোমিটার দৌড়াতে হয়।’

জিপিএস ডেটা বলছে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তৃতীয় ও চতুর্থ ওয়ানডে ম্যাচে হেডকে ফিল্ডিংয়ের সময় ২৬ কিলোমিটার দৌড়াতে হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ফিল্ডিংয়ের অতিরিক্ত চাপই হেডের চোটের কারণ।

ওয়ানডে সিরিজ শেষে টেস্ট সিরিজের শুরু থেকে যেন হেডকে পাওয়া যায়, সে জন্যই ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে ঝুঁকি নেওয়া হচ্ছে না। তবে গলে ২৯ জুন শুরু হতে যাওয়া দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টের আগে তিনি সুস্থ হতে পারবেন কি না, এ নিয়ে শঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। ফিঞ্চ এ ব্যাপারে বলছিলেন, ‘প্রথম টেস্টে সে খেলবে কি না, এটা আমি নিশ্চিত করে বলতে পারছি না। তবে সে অবশ্যই আগামীকালের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে নেই।’

default-image

অস্ট্রেলিয়ার কপাল ভালো, জাতীয় দলের পাশাপাশি শ্রীলঙ্কা সফর করছে অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দল। হেড প্রথম টেস্টের আগে সুস্থ না হলে ‘এ’ দলের হয়ে সফর করা মার্কাস হ্যারিস, ম্যাথু রেন শ, নিক ম্যাডিনসনের যেকোনো একজনের ডাক পড়তে পারে। এ ছাড়া সাদা বলের নিয়মিত মুখ গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের নামও শোনা যাচ্ছে। কিন্তু তিনি সর্বশেষ টেস্ট খেলেছেন ২০১৭ সালের বাংলাদেশ সফরে।

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন