বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশের জয় বিদেশের মাটিতে ভালো করার ক্ষেত্রেও আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে। মুমিনুল বলেন, ‘এটা অবশ্যই আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে। কারণ, একটা বড় দলের বিপক্ষে তাদের মাটিতে ম্যাচ জেতা বড় ব্যাপার। তবে আমাদের অতীত নিয়ে বেশি ভাবার প্রয়োজন নেই। আমাদের দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ নিয়ে ভাবতে হবে।’

দক্ষিণ আফ্রিকার বাউন্সি কন্ডিশনে খেলতে হবে বাংলাদেশকে। বগুড়ার উইকেটে সব সময়ই কিছুটা বাড়তি বাউন্স থাকে। সে কারণেই মুমিনুলদের ক্যাম্প হচ্ছে সেখানে। তবে মুমিনুলদের কাছে বগুড়ার ক্যাম্পটি গুরুত্বপূর্ণ ছিল ভিন্ন কারণে, ‘বগুড়ার উইকেট সব সময় ভালো হয়। যেমন চেয়েছিলাম, তেমন হয়তো হয়নি। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার কন্ডিশনের সঙ্গে এখানকার কন্ডিশনের পার্থক্য অনেক। এমন সফরের আগে একটা প্রক্রিয়ার মধ্যে থাকাটা গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে বিদেশ সফরের ক্ষেত্রে এটা জরুরি। আমার কাছে মনে হয়, এটা আমাদের একটা প্রক্রিয়ার মধ্যে থাকতে সাহায্য করেছে। এর চেয়ে বেশি কিছু নয়।’

default-image

তবে বিশেষ ক্যাম্পের কারণেই দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশ দল সফল হবে, সেটিও ধারণা করা ভুল হবে বলে মনে করছেন মুমিনুল। তাঁর কথা, ‘আমি এখানে ক্যাম্প করেছি, তাই দক্ষিণ আফ্রিকায় ভালো করব, এই নিশ্চয়তা দিতে পারব না। আমি প্রক্রিয়াটা ঠিক রাখতে চাই। প্রক্রিয়া ঠিক থাকলে ভালো করতে পারব। বোর্ড আমাদের যে সুযোগ করে দিয়েছে, সেটা আমাদের জন্য ভালো হবে। এখানকার কন্ডিশনও খুব ভালো ছিল। ব্যাটসম্যান-বোলার সবার জন্যই। যারা বাংলাদেশের জন্য ভবিষ্যতে খেলবে, তাদের জন্য এটা খুব ভালো একটা ক্যাম্প হয়েছে বলে আমার মনে হয়।’

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন