বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আগের দিন জনি বেয়ারস্টোর শতকে লড়াইয়ের ইঙ্গিত দেওয়া ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংসে গুটিয়ে গিয়েছিল ২৯৪ রানে। চোট পাওয়া বেয়ারস্টো আজ যোগ করেছেন আর ১০ রান, শেষ ৩ উইকেটে ইংল্যান্ড আজ তুলেছে ৩৬ রান।

তবে দ্বিতীয় ইনিংসে বোলিংয়েও উজ্জীবিত ছিল তারা। খাজা যখন নেমেছিলেন, অস্ট্রেলিয়ার স্কোর ছিল ৩ উইকেটে ৬৮ রান। ডেভিড ওয়ার্নার ও মারনাস লাবুশেন মার্ক উডের শিকার, জ্যাক লিচ ফিরিয়েছিলেন মার্কাস হ্যারিসকে। এরপর দলীয় ৮৬ রানে স্মিথকে বোল্ড করেন লিচ। উড ও লিচ তাই চোখ রাঙাচ্ছিলেন অস্ট্রেলিয়াকে। তবে খাজার ব্যাটিং ইংল্যান্ডকে ছিটকে দিল আরেক দফা।

default-image

শতকের পথে ক্যামেরন গ্রিনকে নিয়ে পঞ্চম উইকেটে ১৭৯ রানের জুটি গড়েছেন খাজা, অস্ট্রেলিয়াকে নিয়ে গেছেন দাপুটে এক অবস্থানে। ৭৪ রান করে গ্রিন ফিরলেও শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন খাজা। এ বাঁহাতির ইনিংস ছিল দারুণ আক্রমণাত্মক, বলতে গেলে সুযোগই দেননি সেভাবে। ৮৬ বলে অর্ধশতক পূর্ণ করেছিলেন, পরের অর্ধশতক পূর্ণ করতে তাঁর লেগেছে মাত্র ৪৫ বল। এ ইনিংসে ১০টি চারের সঙ্গে খাজা মেরেছেন ২টি ছয়।

default-image

ওয়ারেন বার্ডসলি, আর্থার মরিস, স্টিভ ওয়াহ, ম্যাথু হেইডেন ও স্মিভ স্মিথের পর অ্যাশেজে ষষ্ঠ অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান হিসেবে জোড়া শতকের কীর্তি গড়লেন খাজা। সবশেষ ২০১৯ সালে এজবাস্টনে দুই ইনিংসেই শতক পেয়েছিলেন স্মিথ। সব মিলিয়ে অ্যাশেজে জোড়া শতক করা নবম ব্যাটসম্যান হলেন খাজা। ইংল্যান্ডের হয়ে এ কীর্তি আছে ডেনিস কম্পটন, ওয়ালি হ্যামন্ড ও হারবার্ট সাটক্লিফের। ১৯৪৭ সালে কম্পটনের পর আর কোনো ইংলিশ ব্যাটসম্যান অ্যাশেজে দুই ইনিংসে শতক পাননি।

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন