বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মাঠের আম্পায়ারদের সঙ্গে বেশ উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় করতে দেখা যায় পাওয়েলের সঙ্গে ব্যাটিং করা কুলদীপ যাদবকে। উত্তপ্ত হয়ে ওঠে দিল্লির ডাগআউটও। দুই হাত দিয়ে ব্যাটসম্যানদের উঠে যাওয়ার ইশারা করতেও দেখা যায় দিল্লি অধিনায়ক ঋষভ পন্তকে। এরপর মাঠেই ঢুকে পড়েন দিল্লির সহকারী কোচ প্রবীণ আমরে। শেষ পর্যন্ত সে ম্যাচ ১৫ রানে হারে দিল্লি। তবে ওই ঘটনায় পরে ম্যাচ ফির পুরোটাই জরিমানা করা হয় পন্ত ও আমরেকে, এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞাও পান আমরে।

এ ব্যাপারে সবকিছুই আসলে ভুল হয়েছে। আম্পায়ারিংয়ে ভুল ছিল, কিন্তু আপনার তা মেনে নিতে হতো।
রিকি পন্টিং

অমন হারের পর কাল কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে দারুণ এক জয় পেয়েছে দিল্লি। তবে কালও পন্টিংকে কথা বলতে হলো আগের ম্যাচের বিতর্ক নিয়ে। স্টার স্পোর্টসে এ প্রসঙ্গে দিল্লি কোচ বলেছেন, ‘দেখুন, এটি ঠিক ছিল না। এ ব্যাপারে সবকিছুই আসলে ভুল হয়েছে। আম্পায়ারিংয়ে ভুল ছিল, কিন্তু আপনার তা মেনে নিতে হতো। আমাদের খেলোয়াড়েরা যেভাবে প্রতিবাদ জানিয়েছে, আমাদের সহকারী কোচ যেভাবে মাঠে ছুটে গেছে, আমরা এ নিয়ে খুব একটা খুশি নই। আমি ছেলেদের সঙ্গে এ ব্যাপারে কথা বলেছি।’

default-image

অবশ্য সব মিলিয়ে পরিস্থিতি তাঁদের জন্য সহজ ছিল না, পন্টিং মনে করিয়ে দিয়েছেন সেটি, ‘দিল্লি ক্যাপিটালসে কয়েক সপ্তাহ খুবই কঠিন গেছে আমাদের। কয়েকজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে, আমরা হোটেল রুমে বন্দী ছিলাম।’

তবে এমন ঘটনা যাতে না ঘটে, সে ব্যাপারেও সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন সাবেক অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক, ‘আমি জানি, হতাশা থেকেই শুরু হয়েছে সব। টানটান উত্তেজনার ম্যাচ ছিল, সব ওই মুহূর্তে এসে ঠেকেছিল। তবে আমি ছেলেদের বলেছি, আমাদের সীমারেখাটা ওইখানেই টানতে হবে। এখন টুর্নামেন্টের মাত্র অর্ধেক গেছে, এসব পেছনে ফেলতে হবে। যাতে টুর্নামেন্টের পরের ধাপে আমাদের আচরণ আরও ভালো হয়।’

ওই বিতর্কের পর নো-বলের নিয়ম নিয়েও কথা উঠেছে নতুন করে। মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের কোচ ও আইসিসির ক্রিকেট কমিটির সদস্য মাহেলা জয়াবর্ধনে বলেছেন, ফুলটসের নো-বলের সিদ্ধান্তের নিয়মের দিকে তাকানোর সময় এসেছে। এখনকার নিয়ম অনুযায়ী, প্রযুক্তির সহায়তা থাকলে পায়ের নো-বলের সিদ্ধান্ত টেলিভিশন আম্পায়ারই দেন। তবে ফুলটস বা কোমরসমান ডেলিভারির নো-বলের ক্ষেত্রে অন-ফিল্ড আম্পায়ারকেই সিদ্ধান্ত দিতে হয়। শুধু আউট হলে টেলিভিশন আম্পায়ারের সহায়তা নিতে পারেন অন-ফিল্ড আম্পায়াররা।

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন