বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের দেওয়া এক ভিডিও বার্তায় সেটাই উল্লেখ করেছেন রবীন্দ্র, ‘এ মুহূর্তে তাদের বেশ কয়েকজন রোমাঞ্চকর ফাস্ট বোলার আছে। টি-টোয়েন্টিতে দু-একজনের মুখোমুখি হয়েছিলাম আমরা। বেশ গতিতে বোলিং করে। আমার মনে হয়, ক্রিকেটীয় দিক দিয়ে গত কয়েক বছরে তারা যে এগিয়েছে, তারই প্রমাণ এটা।’

default-image

টেস্টে নিজেদের কন্ডিশনে বাংলাদেশকে ‘সমীহ’ করলেও নিজেদের কাজটা ঠিকঠাক করার ইচ্ছা রবীন্দ্রর, ‘টি-টোয়েন্টিতে তাদের অভিজ্ঞ ক্রিকেটার ছিল, (এবারও) বেশ কঠিন একটা প্রতিপক্ষ হতে যাচ্ছে তারা। আমার মনে হয়, আমাদের সেটাই করতে হবে, যেটা কয়েক বছর ধরেই করে আসছি। আশা করি, সেটা কাজে দেবে।’

গত সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি দিয়ে আন্তর্জাতিক অভিষেক করা রবীন্দ্রর টেস্ট অভিষেক হয়েছিল ভারতের বিপক্ষে। কানপুরে ১ উইকেট হাতে নিয়ে রোমাঞ্চকর ড্র নিশ্চিত করার সময় ক্রিজে ছিলেন তিনি। আটে নেমে ৯১ বলে ১৮ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছিলেন। এবার দেশের মাটিতে টেস্ট খেলার অপেক্ষায় রবীন্দ্র, ‘আমি আমার খেলার মূল পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করেছি, আমার টেকনিক কী হবে, সেটা বোঝার চেষ্টা করেছি। সবাই জানে, সবার আগে দল, আমাদের সংস্কৃতিটাই এমন। দলে এসে যার যেটা করা প্রয়োজন, সেটাই করে। আমার মনে হয়, এটা আমার চোখ খুলে দিয়েছে। দলে এসে নিজেকে মেলে ধরাটাই কাজ এখন।’

default-image

বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই টেস্ট সিরিজে নিউজিল্যান্ডের স্পিনে একমাত্র বিকল্প বলতে গেলে রবীন্দ্রই। ১৩ জনের দলে কোনো বিশেষজ্ঞ স্পিনার রাখেনি কিউইরা। ব্যাটিংয়ের সঙ্গে বাঁহাতি স্পিনের কারণে এজাজ প্যাটেল বা মিচেল স্যান্টনারের আগে রবীন্দ্রকে বেছে নিয়েছেন নির্বাচকেরা।

ওদিকে ১১ দিনের কোয়ারেন্টিনের পর ক্রাইস্টচার্চে অনুশীলন শেষে আজ তাউরাঙ্গার উদ্দেশে রওনা হয়েছে বাংলাদেশ দল। মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে আগামী ১ জানুয়ারি শুরু প্রথম টেস্টের আগে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথা আছে মুমিনুলদের। বে ওভালের ২ নম্বর মাঠে সেই প্রস্তুতি ম্যাচ শুরু হবে ২৮ ডিসেম্বর।

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন