বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের ব্যাটার মুশফিক অবশ্য নিজেকে স্বামী হিসেবে ‘নিখুঁত’ মনে করেন না। কিন্তু স্ত্রী জান্নাতুল কিফায়াতকে তিনি তাঁর নিজের জন্য একেবারে ‘নিখুঁত’ জীবনসঙ্গীই মনে করেন, ‘হয়তো স্বামী হিসেবে আমি নিখুঁত নই। কিন্তু তুমি আমার নিখুঁত জীবনসঙ্গী। বেহেশত থেকে উপহার পাওয়া আত্মীয়।’

এমনিতেই মুশফিক ব্যক্তিগত জীবনে দুর্দান্ত এক মানুষ। কিন্তু তিনি এতে পুরোপুরি সন্তুষ্ট নন। নিজের বিবাহিত জীবনের সপ্তম বর্ষপূর্তির দিনে মানুষ হিসেবে নিজেকে আরও উন্নত করার প্রত্যয় বাংলাদেশের ব্যাটারের। আর এই উন্নতি করার যাত্রাপথে তিনি যে তাঁর প্রিয়তমা স্ত্রীর কাছে অনেক কিছুই শিখছেন বা শিখেছেন, সেটিও বলেছেন তিনি, ‘ইনশাআল্লাহ আমি মানুষ হিসেবে অনেক উন্নতি করতে থাকব। আমি তোমার কাছ (স্ত্রী জান্নাতুল কিফায়াত) অনেক কিছুই শিখেছি প্রিয়তমা।’

default-image

সবশেষে ভালোবাসার সর্বোচ্চ আকুতিই ঝরেছে তাঁর, ‘দয়া করে আমার শেষ নিশ্বাস পর্যন্ত আমার সঙ্গে থাক। তোমাকে ভালোবাসি।’

জান্নাতুল কিফায়াত বাংলাদেশের টি–টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর স্ত্রীর ছোট বোন। ২০১৩ সালে মাহমুদউল্লাহর মাধ্যমেই মুশফিকুরের সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। এরপর মনের দেয়া–নেয়া। ২০১৪ সালে সেই ভালোবাসার চিরস্থায়ী রূপ দেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক। ঘরে নিয়ে আসেন জান্নাতুল কিফায়াতকে। তাঁদের দাম্পত্য জীবনকে আলোকিত করে ছেলে শাহরোজ রহিম মায়ানের আগমন।

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন