বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সাইফউদ্দিনের মা থাকেন ফেনীতে। ঢাকায় এসেছেন, এ সুযোগে একবার ছেলের ‘কর্মস্থল’টি ঘুরে এলেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মায়ের সঙ্গে ছবি পোস্ট করে সাইফউদ্দিন লিখেছেন, ‘মাকে নিয়ে প্রথম মিরপুর স্টেডিয়ামে।’

সাইফউদ্দিন চোট পেয়েছিলেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। প্রথম রাউন্ডে তিনটি ম্যাচের পর সুপার টুয়েলভে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচটাও খেলেছিলেন। সে ম্যাচেই পিঠে চোট পেয়ে বিশ্বকাপ শেষ হয়ে যায় তাঁর। বিশ্বকাপে ফর্মটা অবশ্য ভালোই যাচ্ছিল সাইফউদ্দিনের। ৪ ম্যাচের প্রতিটিতেই উইকেট পেয়েছিলেন। পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে খেলেছিলেন ৬ বলে ১৯ রানের অপরাজিত ইনিংসও।

default-image

এখন পর্যন্ত ২৯টি করে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে খেলা সাইফউদ্দিনের পিঠের চোটটা অবশ্য পুরোনো। আপাতত দুই সপ্তাহের মধ্যে বোলিংয়ে ফেরাটা লক্ষ্য এ ডানহাতি বোলারের। বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে এবার হবে এক দিনের ম্যাচও।

আগামী ৯ জানুয়ারি শুরু সে লিগ দিয়েই প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ক্রিকেটে ফেরার লক্ষ্য বলেও জানিয়েছেন তিনি।

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন