ফিফটি করার পথে ইংলিশ ব্যাটসম্যান জ্যাক ক্রলি।
ফিফটি করার পথে ইংলিশ ব্যাটসম্যান জ্যাক ক্রলি। ছবি: এএফপি

প্রথম চার দিনে খেলা হয়েছিল মোটে ৯৬.২ ওভার। সাউদাম্পটন টেস্টের ভাগ্য মোটামুটি নির্ধারিত হয়ে গিয়েছিল চতুর্থ দিন শেষেই। আজ যখন স্থানীয় সময় বেলা ৩টা ২০ মিনিটে শেষ দিনের খেলা শুরু হলো তখন ম্যাচের ফলের ঘরে ‘ড্র’ লেখাটাই শুধু বাকি ছিল। শেষ পর্যন্ত সেটিই হয়েছে। ইংল্যান্ড ৪৩.১ ওভারে ৪ উইকেটে ১১০ রান তুলে প্রথম ইনিংস ছেড়ে দেওয়ার পর পাকিস্তান আর ব্যাটিংয়ে নামার দরকার মনে করেনি।

বিজ্ঞাপন

বৃষ্টি, আলোকস্বল্পতা ও ভেজা আউটফিল্ড—এই তিনে মিলেই সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টটাকে ড্র বানিয়েছে। তাতে ২১ আগস্ট থেকে সাউদাম্পটনেই শুরু শেষ টেস্টটা সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ হয়ে গেল। ওল্ড ট্রাফোর্ডে প্রথম টেস্টটা জিতে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। সিরিজ বাঁচাতে পাকিস্তানকে শেষ ম্যাচে জিততেই হবে।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে প্রথম টেস্টটা জিতে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। সিরিজ বাঁচাতে পাকিস্তানকে শেষ ম্যাচে জিততেই হবে।

ইংল্যান্ড আজ দিন শুরু করেছিল ১ উইকেট ৭ রান নিয়ে। আগের দিন স্কোরে কোনো রান যোগ না হতেই ফিরেছিলেন ওপেনার রোরি বার্নস। আরেক ওপেনার ডম সিবলি এরপর জ্যাক ক্রলিকে নিয়ে দ্বিতীয় উইকেটে যোগ করলেন ৯১ রান। ৩০.৩ ওভার স্থায়ী জুটি ভাঙে ক্রলি মোহাম্মদ আব্বাসের বলে এলবিডব্লু হলে। যাওয়ার আগে টেস্ট ক্যারিয়ারের তৃতীয় ফিফটি পেয়ে যান ২২ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। ৯৯ বলে ৭ চারে ৫৩ রান করেছেন এই টেস্টে দলে ফেরা ক্রলি।

৯৫ বলে ৩২ রান করা সিবলিকেও ফিরিয়েছেন আব্বাস। উইকেটকিপার রিজওয়ানের ক্যাচ হয়েছেন এই ইংলিশ ওপেনার। পরে লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ ফেরান ওলি পোপকে। ৯১ থেকে ১০৫, এই ১৫ রানে ৩ উইকেট খোয়ায় ইংল্যান্ড।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন