আগামীকাল থেকে শুরু হওয়া টেস্ট সিরিজে ফেবারিট কে? র্যাঙ্কিংয়ে দুই দলের মধ্যে বিস্তর ফারাক। ভারত দুইয়ে, নিউজিল্যান্ড আটে। কাগজে-কলমেও এগিয়ে মহেন্দ্র সিং ধোনির ভারত। সপ্তাহ আড়াই আগে হলে যে কারও উত্তরটা হতো—ভারত। কিন্তু মাঝের এই আড়াই সপ্তাহে দৃশ্যপট এতটাই পাল্টে গেছে যে, টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে রিচার্ড হ্যাডলি দ্বিধাহীনভাবে বলে দিলেন, নিউজিল্যান্ডই ফেবারিট।
ওয়ানডে সিরিজে ভারতকে গুঁড়িয়ে দিয়েছে কিউইরা। স্বাভাবিকভাবেই মানসিকভাবে ভারতীয়রা বিধ্বস্ত। উল্টো দিকে ৪-০তে সিরিজ জিতে ব্রেন্ডন ম্যাককালামের দল আত্মবিশ্বাসে টগবগ করছে। নিউজিল্যান্ডের সর্বকালের সেরা ক্রিকেটার হ্যাডলি তাই বলছেন, ‘এমনিতে তারা খুব, খুবই ভালো দল। কিন্তু এ মুহূর্তে একটু হলেও ফেবারিট আমরা। কারণ, এই মুহূর্তে আমরা ছন্দে রয়েছি।’
বাউন্সি পিচ আর শর্ট বল—এই দুটো অস্ত্র দিয়েই ওয়ানডে সিরিজে ‘ফেবারিট’ ভারতকে কাঁদিয়েছে ম্যাককালামের দল। টেস্টেও সেই রেসিপি নিয়েই প্রস্তুত নিউজিল্যান্ড। বাংলাদেশ সময় ভোররাত চারটায় শুরু অকল্যান্ড টেস্টের পিচ পেসারদের স্বর্গরাজ্য হবে, সেটা স্পষ্টই। ওয়ানডে সিরিজের আগে যে সাফল্য টনিকটা বাতলে দিয়েছিলেন নিউজিল্যান্ডের আরেক সাবেক অধিনায়ক মার্টিন ক্রো। তবে তাঁর ব্যবস্থাপত্র বাকি সবার ক্ষেত্রে সফল হলেও একজনের বেলায় খাটেনি। বিরাট কোহলি। এক সেঞ্চুরি দুই হাফ সেঞ্চুরিতে কোহলি সিরিজে করেছেন ৫৮.২০ গড়ে ২৯১ রান। টেস্টের আগে ক্রো কোহলিকে ভাসালেন প্রশংসায়।
তাঁর কথা, শচীন টেন্ডুলকার, বীরেন্দর শেবাগ ও রাহুল দ্রাবিড়—এই তিনজনের সমন্বিত রূপ বলতে যা যা বোঝায় কোহলি ঠিক তাই, ‘কিছু ক্ষেত্রে এই তরুণ (কোহলি) ওই তিনজনের (শেবাগ, টেন্ডুলকার ও দ্রাবিড়) সংমিশ্রণ। ওদের সবার কাছ থেকেই শিখে সে নিজেকে অনন্য রূপে গড়ে তুলছে।’ অসাধারণ ক্রোর এই প্রশংসা কোহলিকে নিশ্চয় আর উজ্জীবিত করবে। ওয়েবসাইট।

বিজ্ঞাপন
খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন