আগেই বিয়ের তারিখ ঠিক হয়ে যাওয়ায় খেলতে পারছেন না জাতীয় দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। তাই জোর গুঞ্জন, এশিয়ান গেমস ক্রিকেটে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেবেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। দলও ঠিক হয়ে গিয়েছিল বেশ আগেই। আনুষ্ঠানিকভাবে কাল ঘোষণা করা হলো দল, কিন্তু নেই অধিনায়ক! অধিনায়কের নাম জানানো হবে পরে! মেয়েদের ক্রিকেটে বেশ কিছুদিন ধরেই নেতৃত্ব নিচ্ছেন সালমা খাতুন। কিন্তু কাল জানানো হয়নি এশিয়াডের নারী দলের অধিনায়কও। বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান জানালেন, বোর্ড সভায় অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে বলেই এখনই জানানো যায়নি অধিনায়কের নাম।
ছেলেদের দলে আছে আরেকটি অপ্রত্যাশিত নাম। মুশফিক নেই, নিষেধাজ্ঞার খাঁড়ায় সাকিব আল হাসান তো নেই-ই। শোনা যাচ্ছিল, বিশ্রাম দেওয়া হবে তামিম ইকবালকেও। তবে প্রধান নির্বাচক ফারুক আহমেদ জানালেন, ‘এশিয়াডের সোনা ধরে রাখতে চাই আমরা। এ জন্য যতটা সম্ভব শক্তিশালী দল পাঠাব বলেই তামিমকে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’
ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাওয়া ওয়ানডে স্কোয়াডের ১৫ জনের ১১ জনই আছেন এশিয়াডের ১৫ সদস্যের স্কোয়াডে। অধিনায়ক মুশফিকের সঙ্গে ক্যারিবিয়ানে যাওয়া দল থেকে নেই আবদুর রাজ্জাক, মুমিনুল হকরুবেল হোসেন। ২০১০ গুয়াংজু এশিয়াডে সোনাজয়ী দলের ৫ জন আছেন সোনা ধরে রাখার মিশনে—নাসির, শামসুর, মিঠুন, শুভাগত ও সাব্বির।
আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ৪ অক্টোবর দক্ষিণ আফ্রিকার ইনচনে হবে এবারের এশিয়ান গেমস। ক্রিকেটের ছেলে-মেয়ে দুই বিভাগেই এবার অংশ নিচ্ছে ১০টি করে দেশ। গতবারের মতো ভারত এবারও অংশ নিচ্ছে না ক্রিকেটের কোনো বিভাগেই। ছেলেদের বিভাগে গতবারের ব্রোঞ্জজয়ী পাকিস্তান এবার খেলবে শুধু মেয়েদের ক্রিকেটে। ছেলেদের সোনা ধরে রাখায় বাংলাদেশের মূল প্রতিদ্বন্দ্বী তাই শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান, গুয়াংজুর সেমিফাইনালে বাংলাদেশ হারিয়েছিল শ্রীলঙ্কাকে, ফাইনালে আফগানিস্তানকে। গতবারের অভিজ্ঞতা থেকে এবার বেশ শক্তিশালী দল পাঠাচ্ছে শ্রীলঙ্কা। লাহিরু থিরিমান্নের নেতৃত্বে দলে আছেন উপুল থারাঙ্গা, দিনেশ চান্ডিমাল, কিথুরুয়ান ভিথানাগে, চতুরঙ্গ ডি সিলভা, আশান প্রিয়াঞ্জন, ইসুরু উদানা, জীবন মেন্ডিসরা। তবে বাংলাদেশের মতো সেটি প্রায় জাতীয় দল নয়। ফেবারিট বলা যায় তাই বাংলাদেশকেই। অবশ্য গতবার সবাইকে চমকে দিয়ে রুপা জিতেছিল আফগানরা। বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ছাড়া দল ঘোষণা করেছে কাল পর্যন্ত আর শুধু নেপাল। নেপালিরা যাচ্ছে পরশ খড়কার নেতৃত্বেই।
মেয়েদের চ্যালেঞ্জটা সেই তুলনায় আরেকটু কঠিন। গতবারের সোনাজয়ী পাকিস্তান তো আছেই, সঙ্গে এবার আছে শ্রীলঙ্কাও। মেয়েদের রুপাজয়ী গতবারের বাংলাদেশ দলের ৮ জন আছেন এবারের দলে।
ইনচনের দুই হাজার দর্শক ধারণক্ষমতাসম্পন্ন ইয়োনহুই ক্রিকেট গ্রাউন্ডে হবে এশিয়ান গেমসের ক্রিকেট। ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে বাংলাদেশ দলের দেশে ফেরার কথা ১৯ সেপ্টেম্বর। আর এশিয়াড খেলতে দেশ ছাড়বে ২৭ সেপ্টেম্বর।
এশিয়াডগামী ক্রিকেট দল
পুরুষ
তামিম ইকবাল, এনামুল হক, ইমরুল কায়েস, মোহাম্মদ মিঠুন, শামসুর রহমান, শুভাগত হোম চৌধুরী, সাব্বির রহমান, মাহমুদউল্লাহ, নাসির হোসেন, সোহাগ গাজী, আরাফাত সানি, মাশরাফি বিন মর্তুজা, মুক্তার আলী, আল আমিন হোসেন, তাসকিন আহমেদ
নারী
রুমানা আহমেদ, শায়লা শারমিন, লতা মণ্ডল, খাদিজা-তুল কুবরা, ফারজানা হক, সালমা খাতুন, পান্না ঘোষ, নুজহাত তাসনিয়া, জাহানারা আলম, আয়েশা রহমান, ফাহিমা খাতুন, সানজিদা ইসলাম, শারমিন আক্তার, সোহেলি আক্তার, শাহনাজ পারভীন।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন