বেঙ্গালুরু অধিনায়ক কোহলি।
বেঙ্গালুরু অধিনায়ক কোহলি। ছবি: আইপিএল

অস্ট্রেলিয়ায় তিনি গিয়েছিলেন ভারতের হয়ে খেলতে। প্রথম সন্তানের জন্মের সময় বলিউড অভিনেত্রী স্ত্রী আনুশকা শর্মার পাশে থাকতে প্রথম টেস্ট খেলে বাড়ি ফিরেছিলেন, কিন্তু তার আগে বিরাট কোহলি ম্যাচ কম খেলেননি!

ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি খেলেছিলেন তিনটি করে, টেস্ট একটি। এর মধ্যে ওয়ানডে সিরিজে হারলেও তাঁর নেতৃত্বে ভারত টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতেছে। কোহলির খেলা একমাত্র টেস্টে অবশ্য অ্যাডিলেডে ভারতের কপালে জুটেছে লজ্জাজনক হার, টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৬ রানে অলআউট হয়েছিল। এরপর কোহলিকে ছাড়াই ভারত অজিঙ্কা রাহানের অধীন টেস্ট সিরিজে অবিশ্বাস্য রূপকথা লিখেছে, ঘুরে দাঁড়িয়ে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টানা দ্বিতীয় টেস্ট সিরিজ জিতেছে...এ নিয়ে শব্দ খরচাও কম হয়নি!

সে অন্য আলোচনা। এখন কোহলির অস্ট্রেলিয়া সফরের কথা কেন আসছে? আইপিএলে কোহলির দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুতে (আরসিবি) এবার যোগ দেওয়া অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের কথার পর। ‘ম্যাক্সি’র কথায় মনে হচ্ছে, অস্ট্রেলিয়া সফরেও ভারতীয় দলের পাশাপাশি বেঙ্গালুরুর কথাও কোহলির মাথায় ছিল। একভাবে দেখলে, কোহলি যেন সেখানে বেঙ্গালুরুর ফেরি করেছিলেন! কীভাবে? ম্যাক্সওয়েলকে সেই সফরেই বেঙ্গালুরুতে খেলার আমন্ত্রণ জানিয়ে রেখেছিলেন ভারত অধিনায়ক!

বিজ্ঞাপন

বেঙ্গালুরুর টুইট করা এক ভিডিওতে তাঁর বেঙ্গালুরুতে আসা আর এখন পর্যন্ত বেঙ্গালুরুতে কাটানো সময় নিয়ে কথা বলেছেন ম্যাক্সওয়েল। সেখানে ‘ম্যাক্সি’র বেঙ্গালুরুতে আসার পেছনে কোহলির ভূমিকা উঠে এসেছে।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে এখন শুধু ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি দলে সুযোগ পান ম্যাক্সওয়েল। ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি সিরিজেই কোহলি প্রথম তাঁকে বেঙ্গালুরুতে যোগ দেওয়ার কথা বলেছেন বলে জানালেন ৩২ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ান, ‘আমরা অনেক দিন ধরে হালকা-পাতলা খুদে বার্তা চালাচালি করছিলাম। কেমন চলছে সবকিছু, এসব নিয়ে কথা হতো। অস্ট্রেলিয়ায় ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের পর কথা হয়েছে আমাদের। ও আমাকে আরসিবিতে যোগ দেওয়ার ব্যাপারে বলেছিল।’

কিন্তু শুধু কোহলি, ম্যাক্সওয়েল কিংবা বেঙ্গালুরু ফ্র্যাঞ্চাইজি চাইলেই তো হবে না! এখানে নিলামে সবকিছু মিলে যাওয়ার ব্যাপারও থাকে। কোহলিদের চেয়ে ভালো তা আর কে জানে! ম্যাক্সওয়েলও তা-ই বলছিলেন, ‘(নিলামে) আমার আরসিবিতে আসার সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা মাথায় রেখে ও বলেছিল, ‘‘তোমাকে দলে পেলে আমাদের খুব ভালো লাগবে।’’ অবশ্যই এখানে নিলামে সুযোগ পাওয়ার একটা ব্যাপার আছে। ও শুধু বলেছিল, আমাকে দলে পেলে ভালো লাগবে। (বেঙ্গালুরুতে খেলার) ধারণাটা ও মাথায় ঢুকিয়ে দিয়েছিল। এরপরও তো লম্বা একটা প্রক্রিয়া বাকি ছিল। সৌভাগ্যবশত আমি এখন আরসিবিতেই খেলতে পারছি।’

গত ফেব্রুয়ারিতে হয়ে যাওয়া নিলামে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংসের সঙ্গে দড়ি-টানাটানির পর শেষ পর্যন্ত ১৪ কোটি ২৫ লাখ রুপিতে ম্যাক্সওয়েলকে দলে নেয় বেঙ্গালুরু। যদিও সংযুক্ত আরব আমিরাতে হয়ে যাওয়া গত বছরের আইপিএলে ম্যাক্সওয়েলের হতশ্রী পারফরম্যান্সের পর এবারের আইপিএলে তাঁর এত চড়া দাম দেখে বিস্ময়ের পারদ চড়েছিল অনেকের। কিন্তু ভারতের মাটিতে, অপেক্ষাকৃত ধীরগতির পিচে খেলা, বল উইকেটে পড়ার পর উইকেটের বলকে আঁকড়ে ধরায় (গ্রিপ) ভিন্নতা আর ম্যাক্সওয়েলের চার-ছক্কা হাঁকানোর সামর্থ্য মিলিয়ে তাঁকে নিয়ে চেন্নাই-বেঙ্গালুরুর এত আগ্রহের কারণ সহজেই বোঝা যাচ্ছিল।

default-image

বেঙ্গালুরুতে প্রথম ম্যাচে ম্যাক্সওয়েল নিজেকে কিছুটা প্রমাণ করেছেনও। ৯ এপ্রিল এবারের আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের বিপক্ষে দলকে ২ উইকেটের রুদ্ধশ্বাস জয় এনে দেওয়ার পথে ২৮ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৩৯ রান করেন ম্যাক্সওয়েল। বাংলাদেশ সময় আজ রাত ৮টায় আরেক অস্ট্রেলিয়ান ডেভিড ওয়ার্নারের দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে মাঠে নামবে বেঙ্গালুরু।

আইপিএলে এরই মধ্যে বেঙ্গালুরুর জার্সি গায়ে নেমে তো গেছেন, তবে নিলামের আগেই বেঙ্গালুরুর টুপি মাথায় চাপানো হয়ে গিয়েছিল ম্যাক্সওয়েলের গায়ে। এর পেছনে জড়িয়ে আগে থেকেই বেঙ্গালুরুতে থাকা অস্ট্রেলিয়ান লেগ স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা। কোহলিই আগে একবার ঘটনাটা জানিয়েছিলেন। ঘটনাটা এই, আইপিএলের নিলামের ঠিক আগে মজা করতেই ম্যাক্সওয়েলের মাথায় বেঙ্গালুরুর ক্যাপ চাপিয়ে দিয়েছিলেন জাম্পা। সে সময় নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া দল। এরপর ম্যাক্সওয়েল বেঙ্গালুরুতেই সুযোগ পাওয়ার পর সেই ছবি আবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ছড়িয়ে দিয়েছিলেন জাম্পা।

বিজ্ঞাপন

ঘটনাটার কথা মনে পড়তেই যেন একটু লজ্জা পেলেন ম্যাক্সওয়েল, ‘নিলামের দিনের কথা, নিউজিল্যান্ডে তখন রাত। আমরা তখন নিউজিল্যান্ডে কোয়ারেন্টিনে থাকি আর অনুশীলন করি। অ্যাডাম জাম্পার ব্যাগে একটা আরসিবির হ্যাট ছিল। ও সেটা ব্যাগ থেকে বের করল আর (ম্যাক্সওয়েলের মাথায় হ্যাটটা চাপানোর পর) নিশ্চিত করল, আমরা সেটার ছবি তুলছি। ছবিটা বিরাটকে পাঠাল। বলল, ‘‘(ম্যাক্সওয়েলকে দলে নেওয়ার) কাজটা চলো শেষ করে ফেলি। অভিনন্দন, আমি এরই মধ্যে ওকে প্রথম ক্যাপ দিয়ে দিয়েছি।’’’

default-image

যদিও সে সময় ঘটনাটাকে ঘিরে একটু শঙ্কায় ছিলেন ম্যাক্সওয়েল। বেঙ্গালুরুর হ্যাট চাপিয়ে ছবি তুললেন, কিন্তু এরপর যদি বেঙ্গালুরুতে না যেতে পারেন—এই ভেবে শঙ্কা। অকপটে তা স্বীকারও করলেন ম্যাক্সি, ‘ওই ঘটনা ছিল নিলামের আগে। এরপর তো সবকিছু দ্রুতই ঘটে গেল। কিন্তু এভাবে সবকিছু না হলে (ম্যাক্সওয়েল বেঙ্গালুরুতে যেতে না পারলে) কী বোকার মতো কাজই না মনে হতো সেটিকে! ও (জাম্পা) ছবিটা পরে পোস্ট করেছে, কিন্তু তুলেছে নিলামের আগে।’

এরপর হাসতে হাসতে ম্যাক্সওয়েলের স্মৃতিচারণা, ‘কোহলি এ নিয়ে বলেছিল, ‘‘তোমরা দুজনই গাধা প্রকৃতির, তবে মিষ্টি মানুষ ঘরানার গাধা।’’’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন