গত মৌসুমে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুতে খেলেছিলেন ফিঞ্চ।
গত মৌসুমে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুতে খেলেছিলেন ফিঞ্চ। ছবি: বিসিসিআই

গত আইপিএলে বেশ হইচই করেই অস্ট্রেলীয় টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চকে দলে নিয়েছিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। কিন্তু এক মৌসুমের ব্যর্থতার পর ফিঞ্চকে ছেড়ে দেয় বিরাট কোহলির দল। এবারের আইপিএল নিলাম থেকে কোনো দলই ফিঞ্চকে কেনেনি।

ৎঅস্ট্রেলিয়ার টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক, বিশ্বের অন্যতম সেরা টি-টোয়েন্টি ওপেনার হয়েও ফিঞ্চের দল না পাওয়ায় অবাক হয়েছেন অনেকেই। কিন্তু ফিঞ্চ আইপিএল দল না পাওয়ায় খুব একটা অবাক হচ্ছেন না। বরং পরিবারের সঙ্গে কিছুটা সময় কাটানোর সুযোগ পেয়ে নাকি ভালোই হলো তাঁর।

আইপিএল নিলামে নিজের দল না পাওয়া নিয়ে ফিঞ্চ বলেছেন, ‘আবার আইপিএল খেলতে পারলে ভালো হতো। কারণ, আইপিএল দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ একটা টুর্নামেন্ট। তবে আমার সুযোগ না পাওয়া অপ্রত্যাশিত নয়। সবকিছু আমার নিয়ন্ত্রণে থাকলে আমি যেকোনো সময় ক্রিকেট খেলাকেই অন্য যেকোনো কিছুর আগে বেছে নেব। কিন্তু (আইপিএলের সময়টাতে) পরিবারের সঙ্গে আরও কিছু সময় কাটাতে পারাও একেবারে খারাপ হবে না।’

বিজ্ঞাপন

আইপিএলে অবশ্য ফিঞ্চের যে খুব সুখস্মৃতি আছে, তা নয়। ১০ বছর ধরে আইপিএল খেলছেন, এর মধ্যে খেলেছেন ৬টি দলে। থিতু হতে পারেননি কোনো দলে। ১০ বছরের আইপিএল ক্যারিয়ারে মাত্র একবারই টুর্নামেন্টে ৪০০ পেরিয়েছে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনারের রান।

default-image

তবে ফিঞ্চের নিজের কাছে ‘অপ্রত্যাশিত’ না হলেও ফিঞ্চের দল না পাওয়া মেনে নিতে পারছেন না অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক। তাঁর বিশ্বাসই হচ্ছে না ফিঞ্চের আইপিএলে না থাকা!

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ইনিংস উদ্বোধন করতে নেমে ফিঞ্চ ১৫৪ স্ট্রাইক রেটে দুই হাজারের বেশি রান করেছেন। ঘরোয়া টি-টোয়েন্টিতে করেছেন ১০ হাজারের বেশি রান। এত সমৃদ্ধ একজন ওপেনারের কীভাবে আইপিএলে সুযোগ হলো না, এটাই প্রশ্ন ক্লার্কের।

‘আমার বিশ্বাস হচ্ছে না ফিঞ্চ দল পায়নি। ফিঞ্চের জন্যও ব্যাপারটা বড় আঘাতের মতোই হওয়ার কথা, যেহেতু সে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক। আমার মনে হয় এখনো সে বিশ্বের অন্যতম সেরা টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। তাহলে কাদের হিসাব এখানে ভুল? অস্ট্রেলীয় নির্বাচকদের নাকি আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর? আমার বিশ্বাসই হচ্ছে না। অস্ট্রেলীয় টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক দল পায়নি। কেউ না কেউ তো ভুল করছে’—বলেছেন ক্লার্ক।

ফিঞ্চ দল না পেলেও একঝাঁক অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার ঠিকই এবারের আইপিএলের নিলাম থেকে কোটিপতি হতে যাচ্ছেন। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ঝাই রিচার্ডসন, রাইলি মেরিডিথ, নাথান কোল্টার-নাইল, ময়জেস হেনরিকেস, স্টিভ স্মিথ, ড্যান ক্রিস্টিয়ান, বেন কাটিং নিলাম থেকে দল পেয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ম্যাক্সওয়েল ১৪ কোটি ২৫ লাখ রুপিতে গেছেন ফিঞ্চেরই সাবেক দল বেঙ্গালুরুতে। অথচ গত মৌসুমে আইপিএলে ব্যর্থ ছিলেন ম্যাক্সওয়েলও!

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন