২০০৬ সালে স্কটল্যান্ডের এইরে আয়ারল্যান্ডের হয়ে অভিষেক হলো তিন তরুণ তুর্কির—নিয়াল ও’ব্রায়েন, উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড, এউইন মরগান। ৯৯ রান করে রানআউট হয়ে সেঞ্চুরিবঞ্চিত হলেন মরগান। পরের বছর জ্যামাইকার কিংস্টনে বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের প্রতিপক্ষ জিম্বাবুয়ে। বিশ্বকাপ দেখল তৃতীয় টাই। এরপর পাকিস্তানকে বধ করে সুপার এইটে আয়ারল্যান্ড। সেখানে আইরিশদের শিকার বাংলাদেশ। নিজেদের প্রথম বিশ্বকাপেই দুটি টেস্ট খেলুড়ে জাতিকে হারানো, ক্যারিবীয় বিশ্বকাপ অনেক মধুর অনুভূতিই দিল আইরিশদের।
২০১১ বিশ্বকাপে কেভিন ও’ব্রায়েনের অবিশ্বাস্য এক সেঞ্চুরিতে কুপোকাত হলো ইংল্যান্ড। সময়ের পরিক্রমায় উপস্থিত আরেকটি বিশ্বকাপ, ‘২০০৭-এর গাঢ় সবুজ রঙের বদলে এবার হালকা সবুজ জার্সি পরবে আইরিশরা। সেই তিন তরুণের একজন পোর্টারফিল্ড এবার অধিনায়ক, উইকেটরক্ষকের দায়িত্বটা নিয়াল ও’ব্রায়েনের। আর এউইন মরগান পরবেন গাঢ় নীল রঙের পোশাক, তাতে আবার থাকবে সিংহের থাবার ছাপ! আইরিশ সমুদ্র পেরিয়ে মরগান যে এবার ইংলিশ অধিনায়ক!
বহুজাতিক হিসেবে একটা পরিচিতি আছে ইংল্যান্ডের। আইরিশদের জন্যও তাদের অবারিত দ্বার। গত ১০ বছরে তিনজন আইরিশ খেলেছেন ইংলিশদের হয়ে। এড জয়েস আবার ফিরে গেছেন আয়ারল্যান্ডে, বয়ড র্যাঙ্কিনের অভিষেকটা ঠিক জুতসই হয়নি, ইংলিশ দলে নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন এখন। কিন্তু মরগানের কাঁধেই চেপেছে ইংল্যান্ডের দায়িত্ব। ঘরের ছেলেকে পরের হয়ে খেলতে দেখে কেমন লাগে আইরিশদের? উত্তরটা দিয়েছেন আয়ারল্যান্ডের প্রধান নির্বাচক অ্যালান লুইস নিজেই, ‘বিষয়টা ভাবলে তো একটু অস্বস্তি লাগেই। যদি এউইন (মরগান) আর বয়ড (র্যাঙ্কিন) এখনো আমাদের থাকত! অবশ্য এড (জয়েস) এখন আমাদেরই।’
আফসোস করেন, কিন্তু মরগানের প্রতি শুভকামনা আইরিশদের সব সময়ই আছে বলেও জানিয়েছেন সাবেক এই আইরিশ অধিনায়ক, ‘মরগানের যেমন সামর্থ্য তাতে সর্বোচ্চ পর্যায়ে ক্রিকেট খেলা থেকে তাকে আমি বঞ্চিত করতে চাইব না। আমি নিজেও এমনই করতাম, আর সত্যি বলতে কী, প্রতিটি আইরিশই তার ভালো চায়। এটা একটা দারুণ গল্প, একই সঙ্গে আবার হতাশারও। আমরা আমাদের খেলোয়াড়দের ফেরত চাই, এটাই আমাদের পরবর্তী করণীয়।’
হয়তো জয়েসের মতো মরগানকেও একদিন ফিরে পাবে আয়ারল্যান্ড। তবে এবারের বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ড যদি আবারও কোনো রূপকথার জন্ম দেয়, নিশ্চিত করেই তাতে থাকবেন না। মরগান এখন ইংলিশদের, এর আগে কখনো কোনো ইংলিশ অধিনায়ক যা করতে পারেননি, মরগানের কাঁধে যে এবার সেই দায়িত্ব! ক্রিকইনফো, এএফপি।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন