বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল লিখেছে, গত ২১ আগস্ট ভারতের সংবাদপত্র দ্য সানডে গার্ডিয়ান নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তান সফর বাতিল করার চেষ্টা করেছিল। তখন তারা লিখেছিল, নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফর, যেটি আগামী মাসে (সেপ্টেম্বরে) আয়োজনের জন্য সূচি নির্ধারণ করে রাখা, সেটিকে ঘিরে সন্ত্রাসী হামলার শঙ্কা জাগছে। ওই নড়বড়ে অঞ্চলে সজাগ থাকা অনেক সন্ত্রাসী গ্রুপের একটি সফরকারী ক্রিকেটারদের ওপর হামলা চালাতে পারে—এমন জোর সম্ভাবনা আছে।

ভারতের দ্য সানডে গার্ডিয়ান লিখেছিল, পাকিস্তানের সংগঠন তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তানের সাবেক মুখপাত্র এহসানউল্লাহ এহসান বলেন, আইএসের (জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট) পাকিস্তান শাখা নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়দের ওপর হামলা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তবে নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থার (এনজেডসি) জনসংযোগ বিভাগের ব্যবস্থাপক রিচার্ড বুক তখন সানডে গার্ডিয়ানকে বলেছিলেন যে নিরাপত্তার ব্যাপারে স্বাধীন পরামর্শক দলের পরামর্শ মেনেই যা করার করবে নিউজিল্যান্ড—এমনটাই এখন লিখেছে পাকিস্তানের দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল।

default-image

এরপর নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তান সফর বাতিল করার পেছনে ভারতের যোগসাজশ দেখছে পাকিস্তানের দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল পত্রিকা। তারা লিখেছে, এ মুহূর্তে ইসলামাবাদে অবস্থান করা একজন বিদেশি ভারতের হয়ে কাজ করেছেন যেন নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তান সফর বাতিল হয়ে যায়। নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কার ভুয়া খবর নিউজিল্যান্ডের দলের কাছে ছড়িয়ে দিয়ে তিনি কাজটা করেন বলে লিখেছে দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল।

কীভাবে সেটা হলো, সেটির পেছনে ভারতের দ্য সানডে গার্ডিয়ানের ওই খবরের প্রসঙ্গ টেনে এনেছে পাকিস্তানের পত্রিকাটি। তারা লিখেছে, নিরাপত্তাব্যবস্থায় সন্তুষ্ট হয়ে নিউজিল্যান্ড দল পাকিস্তানে এসেছে। কিন্তু এরপরই পাকিস্তানে নিউজিল্যান্ড দলের ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে নিয়োজিত লোকদের কাছে একজন বিদেশি কূটনীতিক ভারতীয় পত্রিকায় লেখা ওই হুমকির কথা পৌঁছে দিয়েছেন বলে ধারণা করছে পাকিস্তান প্রশাসন—এমনটাই লিখেছে দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল।

default-image

হুমকিটাকে পাকিস্তানের সংশ্লিষ্ট প্রশাসন বলছে ‘নিছকই একটা গুজব’। কে কাজটা করেছেন, সেটাও পাকিস্তানের কর্তৃপক্ষ সম্ভবত জানতে পেরেছে—এমনটাই লিখেছে পাকিস্তানের পত্রিকাটি।

দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনালের দাবি, আইএসআই, আইবি, এমআই কিংবা পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ—পাকিস্তানের কোনো গোয়েন্দা সংস্থাই কোনো ধরণের হামলার হুমকির কথা জানায়নি। স্পেশাল ব্রাঞ্চ শুধু কর্তৃপক্ষকে বলেছিল ইমাম হোসেনের (রা.) চেহলাম ও নিউজিল্যান্ড দলের সফর উপলক্ষে নিরাপত্তাব্যবস্থা অনেক জোরদার করতে।

নিরাপত্তাব্যবস্থা নিউজিল্যান্ড দলের প্রত্যাশামাফিক ছিল। কিন্তু ওই কূটনীতিক নিউজিল্যান্ড দলের কাছে ভুয়া নিরাপত্তাশঙ্কার কথা পৌঁছে দিয়ে সফরকারীদের মনে ভয় ঢুকিয়ে দিয়ে থাকতে পারেন বলে ধারণার কথা লিখেছে দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল।

এদিকে নিউজিল্যান্ড দল আজ পাকিস্তান ছাড়বে বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ড।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন