বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা।
বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা। ছবি: টুইটার

কঙ্গনা রনৌত ঠোঁটকাটা। কিংবা স্পষ্টভাষীও বলা যায়। বেফাঁস কথা বলার পাশাপাশি উচিত কথাটা মুখের ওপরই বলে দিতে জানেন। সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার পর কঙ্গনা তো রীতিমতো ঝড় তুলেছিলেন বলিউডে। ভারতের এ শক্তিশালী অভিনেত্রী এবার ছাড় দিলেন না সুনীল গাভাস্কার ও আনুশকা শর্মাকেও। দুজনের বাগ্‌যুদ্ধে কঙ্গনার ভূমিকা যেন ‘আম্পায়ার’!

একটু পেছন ফিরে দেখা যাক। ঘটনার শুরু সানরাইজার্স হায়দরাবাদ-রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু ম্যাচে। সানরাইজার্স অধিনায়ক লোকেশ রাহুলের দুটি ক্যাচ ফেলেন কোহলি। ব্যাটিংয়েও ভালো করতে পারেননি বেঙ্গালুরু অধিনায়ক। এরপরই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে এ ম্যাচের ধারাভাষ্যে গাভাস্কার বলেছেন, ‘বিরাট লকডাউনে শুধু আনুশকার বলে অনুশীলন করেছে।’ অর্থাৎ, আনুশকার সঙ্গে ক্রিকেট খেললে পারফরম্যান্স এমন হওয়ারই কথা। মন্তব্যটিতে নারী বিদ্বেষ স্পষ্ট। তারওপর কোহলির ব্যর্থতার জন্য এখানে প্রচ্ছন্নভাবে আনুশকাকে দোষারোপ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

কোহলির স্ত্রী ও বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা এরপর চুপ করে থাকেননি। ভারতীয় কিংবদন্তির মন্তব্য কুরুচিপূর্ণ, ইনস্টাগ্রামে এমন মন্তব্য করেন আনুশকা। তবে গাভাস্কার সত্যিই এমন মন্তব্য করেছেন কি না কিংবা তাঁর কথা ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে বলেও দাবি উঠেছে। গাভাস্কার অবশ্য আত্মপক্ষ সমর্থন করে সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘প্রথমত আমি বলতে চাই, আমি ওকে (আনুশকা) কখন দোষারোপ করলাম? ওকে তো দোষারোপ করিনি। শুধু এতটুকুই বলেছি যে, ওই ভিডিওতে দেখা গেছে সে বিরাটকে বোলিং করেছে। লকডাউনের সময়ে বিরাট এর বাইরে আর কারও বলে অনুশীলন করার সুযোগ পায়নি। ওটা টেনিস বলের ক্রিকেট ছিল। লকডাউনে মানুষ সময় কাটাতে যে ক্রিকেট খেলে, সেটা। এই তো! এখানে বিরাটের ব্যর্থতার জন্য ওকে কোথায় দোষারোপ করলাম?’

এখন পরিস্থিতি যে পর্যায়ে তাতে ভারতের মানুষ যেন দুটি ভাগে বিভক্ত। কেউ গাভাস্কারের পক্ষে কেউ আনুশকার। অনলাইনে গাভাস্কারের পক্ষে প্রচারণাও চলছে। এদিকে কঙ্গনা চুপ করে না থেকে দুটি পোস্ট করেছেন টুইটারে। প্রথম টুইটে তিনি সমালোচনা করেছেন বলিউডে নিজের সতীর্থ আনুশকার, ‘যখন আমাকে হুমকি দেওয়া হয়েছিল এবং হারামখোর বলা হয়েছিল আনুশকা চুপ করে ছিল। আজ একই বিদ্বেষ তাকেও আঘাত করেছে। সুনীল গাভাস্কার যে তাকে ক্রিকেটে টেনে এনেছেন তার নিন্দা করছি তবে একই সঙ্গে সুবিধাবাদী নারীবাদও শোভন নয়।’

বিজ্ঞাপন

এরপর আরও একটি টুইট করেন কঙ্গনা, ‘একমাত্র যৌন বিকৃত লোকেরাই সুনীল গাভাস্কারের কথায় যৌনতা খুঁজে পাবেন, যা তিনি বলেছেন জাতীয় টিভিতে একজন নারীকে নিয়ে। তার নামটা নেওয়া ঠিক হয়নি। কিন্তু আনুশকার তো একজন ক্রিকেটারের সঙ্গে খেলেছে এবং স্বামীর সঙ্গে তাঁর ক্রিকেট অনুশীলনের বেশ কিছু ভিডিও আছে।’

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া কাল গাভাস্কারের মন্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়েছে। পত্রিকাটির অনলাইন সংস্করণে লেখা হয়, গাভাস্কার সে সময় বলেছেন, ‘লকডাউনে তো ও শুধু আনুশকার বোলিংয়ে অনুশীলন করেছে, সেটির ভিডিও দেখেছি (লকডাউনের সময়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে যেখানে দেখা যায় আনুশকা-কোহলি নিজেদের ছাদে টেনিস বলে ক্রিকেট খেলছেন)। অতটুকু অনুশীলনে আর কী-ই বা হয়।’ অর্থাৎ, গাভাস্কার লকডাউনের সময়ে কোহলির ক্রিকেট অনুশীলনের অভাবের দিকে ইঙ্গিত করেছেন।

মন্তব্য পড়ুন 0