default-image

ডানেডিনে আজ দারুণ একটা রেকর্ড গড়েছে আফগানিস্তান। এই প্রথমবারের মতো ব্যাটিংয়ে নেমে দলটির প্রথম আট ব্যাটসম্যানই ছুঁয়েছেন দুই অঙ্কের রান। আট ব্যাটসম্যানের সম্মিলিত কৃতিত্বে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আফগান-সেনারা স্কোরবোর্ডে তুলেছে ২৩২ রান। আসগর স্টানিকজাইয়ের ব্যাট থেকে এসেছে সর্বোচ্চ ৫৪ রান। সামিউল্লাহ শেনওয়ারি করেছেন ৩৮ রান। এছাড়া আরও ছয় ব্যাটসম্যানের ছোট অথচ গুরুত্বপূর্ণ ইনিংসে লঙ্কানদের বিপক্ষে কিন্তু আজ চ্যালেঞ্জটা ভালোই ছুঁড়েছে আফগানিস্তান।
শ্রীলঙ্কার পক্ষে ৩টি করে উইকেট লাসিথ মালিঙ্গা ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। দুটো উইকেট সুরাঙ্গা লাকমালের। একটি করে উইকেট তুলে নিয়েছেন খিসারা পেরেরা ও রঙ্গনা হেরাথ।
আফগানিস্তানের রানের চ্যালেঞ্জটা যে যথেষ্ট কঠিন, সেটা প্রমাণিত হয়েছে শ্রীলঙ্কান ইনিংসের শুরুতেই। ‘গোল্ডেন ডাকে’ ফিরেছেন দুই লঙ্কান ওপেনার তিলকরত্নে দিলশান ও লাহিরু থিরিমান্নে। স্কোরবোর্ডে ৬ রান উঠতেই চোখে অন্ধকার দেখছে শ্রীলঙ্কা। কবে কী আচ ডানেডিনে অপেক্ষা করছে কোনো চমক? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে অবশ্য অপেক্ষ করতে হবে আরও কিছুক্ষণ।
নিজেদের ইনিংসের প্রথম বলেই দৌলত জাদরানের বলে এলবি হয়ে ফিরেছেন থিরিমান্নে। পরের ওভারেই শাপুর জাদরানের অফ স্টাম্পের বাইরের একটি বল খোঁচা দিয়ে সাজঘরে ফিরেছেন তিলকরত্নে দিলশান।
টস জিতে আফগানিস্তানকে ব্যাটিংয়ে পাঠানো শ্রীলঙ্কা অবশ্য বল হাতে নিজেদের ব্যর্থতাই দেখছে। আফগানদের সংগ্রহটাকে আরও নিচের দিকে বেধে রাখতে পারলে বোধহয় রান তাড়াটা স্বস্তিদায়ক মনে হতো শ্রীলঙ্কার। আফগানদের ২৩২ রান যে লঙ্কানদের চাপে ফেলেছে তার প্রমাণ হিসেবে পতন হওয়া দুই উইকেটের পাশাপাশি কুমার সাঙ্গাকারার দুটো জীবনপ্রাপ্তির ঘটনাও উল্লেখ করা যেতে পারে। এরই মধ্যে বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যানকে দু’বার ‘জীবন’ দিয়েছেন অনভিজ্ঞ আফগান ফিল্ডাররা। সূত্র: স্টারস্পোর্টস-৪

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন