বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এর মধ্যে এশিয়ার দলটায় কে কে খেলবেন, সেটা নিশ্চিত হয়ে গেছে। আক্ষরিক অর্থেই তারার হাট বসেছে দলে। ‘এশিয়া লায়নস’ বলে পরিচিত হতে যাওয়া দলটাতে আছেন শোয়েব আখতার থেকে শুরু করে শহীদ আফ্রিদি, সনৎ জয়াসুরিয়া, মুত্তিয়া মুরালিধরন—সবাই।

শুধু তা-ই নয়, দলে আরও আছেন লঙ্কান ইতিহাসের শ্রেষ্ঠতম পেসার চামিন্দা ভাস, বিশ্বকাপজয়ী উইকেটকিপার রমেশ কালুভিথারানা, সাবেক ওপেনার উপুল থারাঙ্গা। পাকিস্তান থেকে আরও আছেন বিখ্যাত ব্যাটসম্যান ইউনিস খান, মিসবাহ-উল-হক, মোহাম্মদ ইউসুফ; অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক, মোহাম্মদ হাফিজ; পেসার উমর গুল ও আজহার মাহমুদ। ওদিকে আফগানিস্তানের একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে দলে আছেন সাবেক অধিনায়ক আসগর আফগান। বাংলাদেশের সাবেক বা বর্তমান কোনো ক্রিকেটার নেই দলে।

default-image

এই দলের বিপক্ষে খেলার জন্য ভারতও দল বানাচ্ছে। ভারতের দলের নামটাও গালভরা—‘ইন্ডিয়া মহারাজাস’। যে দলে খেলবেন বলে এর মধ্যে নিশ্চিত হয়েছে সাবেক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ কাইফ ও অলরাউন্ডার স্টুয়ার্ট বিনির নাম। কিছুদিন আগে ভারতের সদ্য সাবেক হওয়া কোচ রবি শাস্ত্রী এ টুর্নামেন্টের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন কমিশনার হিসেবে।

আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে রোহিত-কোহলিদের সাবেক কোচ ভারতের দলে কাইফ-বিনিকে দেখে বেশ উচ্ছ্বসিত, ‘ভারতের ক্রিকেটে মোহাম্মদ কাইফ আর স্টুয়ার্ট বিনির অবদান অনেক। আমার মনে হয়, এই লিগেও তাঁদের অসাধারণ ভূমিকা থাকবে। লেজেন্ডস লিগ ক্রিকেটে তাঁরা কেমন খেলেন, সেটা দেখার জন্য আমি আগ্রহভরে অপেক্ষা করব।’

ওদিকে এই লিগের প্রধান নির্বাহী রমন রাহেজা জানিয়েছেন, কাইফ ও বিনির আগমন লিগটাকে আরও বৈচিত্র্যপূর্ণ করে তুলবে, ‘ইন্ডিয়া মহারাজাস দলে মোহাম্মদ কাইফ আর স্টুয়ার্ট বিনিকে পেয়ে আমরা অনেক রোমাঞ্চিত। কাইফ আর বিনি এ টুর্নামেন্টে অনেক অভিজ্ঞতা আর বৈচিত্র্য নিয়ে আসবে।’


বাকি বিশ্ব নিয়ে গঠিত দলে আর কে কে খেলবেন, সে ব্যাপারে এখনো কিছু জানা যায়নি। টুর্নামেন্টের মুখপাত্র হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে বলিউড তারকা অমিতাভ বচ্চনের নাম।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন