বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এবারের আইপিএলে ১২ ইনিংসে ২১৬ রান করেছেন কোহলি। এর মধ্যে প্রথম বলেই শূন্য রানে ফিরেছেন তিনবার। আইপিএলেই মোট ছয়বার প্রথম বলেই আউট হয়েছেন কোহলি, যার তিনটিই এবারের আইপিএলে। এই তিনটির মধ্যে আবার দুবার সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে, একবার লক্ষ্ণৌ সুপারজায়ান্টসের বিপক্ষে।

প্রতিবারই কোহলি ডাগআউটে ফিরেছেন অবিশ্বাসের হাসি হেসে। যেন তিনি বিশ্বাসই করতে পারছেন না।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর অধিনায়কত্বে আর নেই কোহলি। সে কারণেই তাঁকে খুব বেশি কথাবার্তা বলতে শোনা যায় না। তবে এবার তিনি নীরবতা ভেঙেছেন এক আইপিএলে তিন তিনবার প্রথম বলে আউট হওয়া নিয়ে। কথা বলেছেন নিজের বাজে ফর্ম নিয়ে সাবেকদের পরামর্শ বিষয়েও। অবিশ্বাস্য বাজে ফর্মে তাঁর মনের অবস্থা কেমন, সেটিরও ইঙ্গিত মেলে কোহলির কথায়।

‘প্রথম বলে আউট হওয়া...হে, ঈশ্বর! এমন কিছু যে কখনোই ঘটেনি আমার ক্যারিয়ারে। সে কারণেই আমি আউট হওয়ার পর হেসেছি। এর কারণ, আমার কাছে মনে হলো, আমার জীবনের মুদ্রার সব পিঠই দেখা হয়ে গেল। অনেক দিন পর এক খেলাতেই অনেক কিছু দেখলাম।’ কোহলি টুইটারে বেঙ্গালুরুর পোস্ট করা এক ভিডিওতে এমন কথাই বলেছেন।

default-image

তাঁর ফর্ম নিয়ে আলোচনার বিষয়টিও খুব ভালো করেই জানেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক। সাবেক ক্রিকেটার, বিশেষজ্ঞদের সব কথাই যে তাঁর মনে ধরছে, ঠিক এমনটা নয়। তারপরও তিনি শুনে যাচ্ছেন। আসলে এমন বাজে পরিস্থিতির মুখোমুখি তো ব্যক্তিক্রিকেটার হিসেবে আগে কখনোই হননি তিনি। এসব আলোচনা–সমালোচনা নিয়ে তাঁর মন্তব্য একটাই, ‘আমার জীবনটা তো যাপন করি আমি, তাঁরা করেন না।’

বাজে ফর্মের কারণে নিজের মনের মধ্যে যে কী ধরনের ঝড় বয়ে যাচ্ছে, সেটিই অন্য কেউ অনুভব করতে পারবেন না বলেই মন্তব্য করেছেন কোহলি, ‘আমি জানি আমার মনের অবস্থা কী! আমি যা অনুভব করছি, সেটি অন্যরা কেউই অনুভব করতে পারবেন না। অন্যরা তো আমার ওই মুহূর্তগুলো বুঝতে পারবেন না। আমি কীভাবে এসব কথাবার্তা থেকে দূরে থাকতে পারি! আপনাকে হয় টিভি মিউট করে রাখতে হবে অথবা বাইরের আলোচনা থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে রাখতে হবে। আমি দুটিই করার চেষ্টা করছি।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন