বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সিলভারউডের বিদায়ের পর অন্তর্বর্তীকালীন দায়িত্ব নিয়েছিলেন সাবেক ইংলিশ অলরাউন্ডার পল কলিংউড। তাঁর অধীন ওয়েস্ট ইন্ডিজে টেস্ট সিরিজে হেরেছিল ইংল্যান্ড। এর পর থেকেই ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ড খোঁজ করছে নতুন কোচের। টেস্ট ও ওয়ানডের জন্য আলাদা দরখাস্তের আবেদনও আহ্বান করে তারা।

ইংল্যান্ডের নতুন কোচ কে হবেন? নাম আসছে বেশ কয়েকজনের। কিছুদিন আগেই সংবাদমাধ্যমে নতুন কোচ হিসেবে সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান ও ভারতকে ২০১১ বিশ্বকাপ জেতানো কোচ গ্যারি কারস্টেনের নাম এসেছিল। অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ক্রিকেটার সাইমন ক্যাটিচ তো সাক্ষাৎকারই দিয়ে এসেছেন।

default-image

নাম এসেছিল আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের কোচ, সাবেক নিউজিল্যান্ড তারকা ব্রেন্ডন ম্যাককালামেরও। বিবিসিসহ বিভিন্ন ব্রিটিশ গণমাধ্যম জানাচ্ছে, ম্যাককালামকেই নাকি শেষ পর্যন্ত বেছে নিচ্ছে ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ড।

ম্যাককালাম নিউজিল্যান্ডের হয়ে ১০১টি টেস্ট খেলেছেন। টেস্ট ক্রিকেটে ৫৪ বলে শতরান করে তিনি এই সংস্করণের দ্রুততম শতকের মালিকও। ১২টি শতক আর ৩১টি অর্ধশতকে তাঁর সংগ্রহ ৬৪৫৩ রান।

default-image

বেশ কিছু ব্যাপার ম্যাককালামের পক্ষে কাজ করেছে বলে জানিয়েছে কয়েকটি ইংলিশ গণমাধ্যম। তিনি নাকি টেস্ট অধিনায়ক বেন স্টোকসের পাশাপাশি সীমিত ওভারের অধিনায়ক এউইন মরগানেরও পছন্দের কোচ।

গত বছর আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের অধিনায়ক হিসেবে ম্যাককালামের অধীন খেলেছেন মরগান। কিছুদিন আগেই মরগান বলেছিলেন, ২০১৫ বিশ্বকাপের পর সাদা বলের ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের শক্তিশালী দল বানাতে তিনি ম্যাককালামের কাছ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েছেন। ইংলিশ ক্রিকেটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রবার্ট কি’কেও মরগানই নাকি ম্যাককালামের ব্যাপারে বলেছেন।

ম্যাককালাম দায়িত্ব নিলে আগামী মাসে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ দিয়েই তাঁর যাত্রা শুরু হবে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন