default-image

সোবার্স কথাগুলো বলেছেন তাঁর নামে প্রতিষ্ঠিত একটি দাতব্য সংস্থা আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তৃতায়। গ্যারি সোবার্স ফাউন্ডেশন নামের সংস্থাটি তরুণ, প্রতিভাবান অথচ দরিদ্র ক্রিকেটারদের কল্যাণে প্রায় ৫০ মিলিয়ন পাউন্ড তহবিল প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কাজ করছে। সংস্থাটি ইংল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, দক্ষিণ আফ্রিকা, ভারত ও অস্ট্রেলিয়াতে প্রতিভাবান তরুণ ক্রিকেটার খুঁজে বের করার কাজ করবে।

default-image

বক্তৃতায় সোবার্স সংস্থার কার্যক্রমে আশাবাদ প্রকাশ করেছেন, ‘এখানে এসে কথা বলতে পেরে দারুণ লাগছে। মনে হচ্ছে, গোটা জীবন ধরে যা করেছি, তাতে কিছুটা হলেও সফল হতে পেরেছি। সে কারণে আপনারা সবাই আমাকে মনে রেখেছেন, আমাকে ভালোবেসেছেন। আমি মনে করি, এই সাফল্য কেবল আমি মাঠে কী করেছি, সেটির কারণে নয়, আমি মাঠের বাইরে; পরিবার, সমাজ ও দেশের জন্য যা যা করেছি, সেগুলো নিয়েই। আশা করছি অন্যরা আমাকে এ ব্যাপারে অনুসরণ করবে, উপকৃত হবে।’

৮৫ বছর বয়সী সোবার্স তৃপ্ত, ক্রিকেট থেকে তিনি সবকিছুই পেয়েছেন, ‘ক্রিকেট আমাকে সবকিছুই দিয়েছে। আমি যখন তরুণ, তখন আমার বাবা মারা যান। আমার একটা পরিবার ছিল। আমাদের পরিবারের সবাইকে কাজে যেতে হয়েছে। আমি ক্রিকেট খেলা শুরু করি খুব অল্প বয়সে। আমি আমার পরিবার ও দেশকে সেবা করতে চেয়েছি। শেষ পর্যন্ত তাতে সফল হতে পেরেছি।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন