default-image
>উইকেট নিয়ে আইসিসির প্রতি বেশ বিরক্ত সরফরাজ আহমেদ। ভারতের তুলনায় পাকিস্তান কঠিন উইকেটে খেলছে বলে মনে করেন পাকিস্তান অধিনায়ক

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি। উইকেট নিয়ে ঠিক সন্তুষ্ট নন দলটির অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। তাঁর বিশ্বাস, উইকেট নিয়ে ভারত বেশি সুবিধা পাচ্ছে। ব্যাটিংবান্ধব এবং তাঁদের স্পিনারদের জন্য উপযোগী উইকেট পাচ্ছে বিরাট কোহলির দল। কিন্তু পাকিস্তানকে খেলতে হচ্ছে ঘাসের ও বাউন্সি উইকেটে—যেখানে পেসারদের সুবিধা বেশি। সরফরাজ এ নিয়ে আইসিসির প্রতি বেশ বিরক্ত, জানিয়েছে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ‘জং’।

ট্রেন্ট ব্রিজে প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১০৫ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল পাকিস্তান। ওখানকার উইকেট এমনিতে পেসবান্ধব। ওশানে টমাস, শেলডন কটরেল, আন্দ্রে রাসেলরা পুরো ফায়দা তুলে নিয়েছিলেন উইকেটের। আবার একই মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রায় সাড়ে তিন শ স্কোর গড়ে পরের ম্যাচটা জিতেছে পাকিস্তান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচটা তো বৃষ্টিতে ভেসে গেল। আর আজ টন্টনের কুপার অ্যাসোসিয়েটস কাউন্টি গ্রাউন্ডে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয়েছে পাকিস্তান। সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, টন্টনের উইকেট নিয়েও সন্তুষ্ট নন সরফরাজ।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চার পেসার নিয়ে খেলছে পাকিস্তান। যদিও দলটির কোনো পেসারই এখনো নিজেকে পুরোপুরি মেলে ধরতে পারেননি। টন্টনের উইকেট পেসবান্ধব বলেই টস জিতে বোলিং নিয়েছেন সরফরাজ। তবে ম্যাচের আগে টন্টনের উইকেট দেখে খুশি হতে পারেননি পাকিস্তান অধিনায়ক। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ‘জিও নিউজ’কে সরফরাজের অসন্তোষের কথা জানিয়েছেন তাঁর-ই ঘনিষ্ঠ এক সূত্র, ‘ভারত কেন সব সময় ব্যাটিংবান্ধব ও তাদের স্পিনারদের উপযোগী উইকেট পায়, তা ভাবছেন সরফরাজ। এ ধরনের উইকেট এশিয়ান দলের জন্য উপযোগী। অথচ পাকিস্তানকে আইসিসির টুর্নামেন্টে সব সময় তার চেয়েও চ্যালেঞ্জিং উইকেটে খেলতে হয়, যেমন টন্টনের।’

টন্টনে এই প্রথমবারের মতো ওয়ানডে খেলছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের বোলিং কোচ আজহার মাহমুদ ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্রিকেটে খেলেছেন অনেক দিন। তাঁর মতে, ইংলিশ কাউন্টি ক্রিকেটে ওয়ানডে সংস্করণে এমন উইকেটই সাধারণত ব্যাটিংবান্ধব হয়ে থাকে। তবে ম্যাচের দিন উইকেটের আচরণ পাল্টে যেতে পারেও বলে মনে করেন পাকিস্তানের সাবেক এ অলরাউন্ডার।

২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে ভারত এ পর্যন্ত দুই ম্যাচ খেলেছে। সাউদাম্পটনের রোজ বোলে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে বিরাট কোহলির দল। কেনিংটন ওভালে পরের ম্যাচে তাদের কাছে ৩৬ রানে হারে অস্ট্রেলিয়া। সে ম্যাচে দুই দলই তিনশোর্ধ্ব রান করেছিল, আর ওভালের উইকেটও সাধারণত ব্যাটিংবান্ধব।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন