default-image

ভারতের হয়ে মালিকের সর্বশেষ ম্যাচটি ছিল গতকাল। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষটিতে ভারতীয় একাদশে জায়গা হয় তাঁর। ইংলিশ ওপেনার জেসন রয়কে আউট করেন তিনি। কিন্তু ৪ ওভারে ৫৬ রান দেওয়া মালিক ছিলেন দলের সবচেয়ে খরুচে বোলার। শুধু তা-ই নয়, আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ভারতীয় বোলারদের মধ্যে এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি রান দেওয়ার তালিকার তিন নম্বরে এখন মালিকের নাম।

অথচ এই মালিককে বলা হচ্ছিল ভারতীয় ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ তারকা। সর্বশেষ আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে ১৪ ম্যাচ খেলে ২২টি উইকেট শিকার করেছেন তিনি। ঘন্টায় ধারাবাহিকভাবে ১৫০ কিলোমিটার বেগে বোলিং করেছেন। জিতেছেন টুর্নামেন্টের সেরা উদীয়মান তারকার পুরস্কারও।

default-image

আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের শুরুতে আইপিএলের সেই মালিককে এখনো পায়নি ভারত। তবে মালিকের যা সামর্থ্য, তাতে তাঁর ওপর আস্থা রাখতে চান ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচের টসের সময় রোহিত বলেছেন, ‘সে আমাদের দেখিয়ে দিয়েছে ওর দক্ষতা কতটুকু। এখন ওকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের চাপের সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে খেলতে হবে। আমরাও সেদিকে তাকিয়ে আছি। এমনিতে সে দারুণ এক প্রতিভা, এতে কোনো সন্দেহ নেই।’

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে জায়গা পাকা করতে যে মালিককে আরও সময় দেওয়া হবে, সেটিও বোঝা গেল রোহিতের কথায়। তিনি বলছিলেন, ‘আমরা ওর পাশে থাকতে চাই। মাঠে সে যা-ই করুক, আমরা ওকে আত্মবিশ্বাস দিতে চাই।’

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ম্যাচে গতকাল ১৭ রানের হারের পরও মালিকের প্রসঙ্গে রোহিতকে প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে। তিনি বলেছেন, ‘আমাদের দেখতে হতো ছেলেরা ৪ ওভারের চাপটা নিতে পারে কি না। এটা শুধু একজনের ব্যাপার নয়, পুরো বোলিং আক্রমণের ব্যাপার। এখন পর্যন্ত সব ঠিকই আছে। আমরা চাই ছেলেরা প্রতি ম্যাচেই উন্নতি করুক। আজকের দিনটা আমাদের জন্য বড় শিক্ষা ছিল। এমন ম্যাচ থেকে অনেক কিছুই শেখার থাকে। সেটা মাথায় রাখতে হবে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন