বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ডি ককের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে উড়ন্ত সূচনা পায় প্রোটিয়ারা। শুরুতে সময় নিলেও উইকেটে থিতু হয়ে ডি ককের পথ ধরেন আরেক ওপেনার মালান। দুজন মিলে প্রথম উইকেট জুটিতে যোগ করেন ২২৫ রান। ডি কক ৯১ বলে ১২০ রানের ইনিংস খেলে আউট হওয়ায় ভাঙে দুই ওপেনারের ম্যারাথন জুটি। সঙ্গী হারালেও পুরো ৫০ ওভার খেলেছেন মালান। ১৬৯ বল খেলে করেছেন ক্যারিয়ার–সেরা অপরাজিত ১৭৭ রান। দুই ওপেনারের জোড়া সেঞ্চুরিতে দক্ষিণ আফ্রিকা ৪ উইকেটে করেছে ৩৪৬ রান।

default-image

বড় স্কোর সফলভাবে তাড়া করতে আইরিশদের টপ অর্ডারকেও সমানতালে জ্বলে উঠতে হতো। পল স্টার্লিং, অ্যান্ডি বালবিরনিরা আজ সেটি করতে পারেনি। উল্টো ব্যাটিং পাওয়ার প্লেতেই ২৭ রানে ৩ উইকেট হারালে আইরিশদের হার প্রায় নিশ্চিতই হয়ে যায়। মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান কুর্তিস ক্যাম্পার ও সিমি সিং লড়াই করে দক্ষিণ আফ্রিকাকে যা একটু অপেক্ষা করান। ৫৪ বলে ৫৪ রানের ইনিংস খেলে ক্যাম্পার আউট হলেও শেষ পর্যন্ত টিকে ছিলেন সিমি সিং, অপরাজিত ১০০ রান করেছেন ৯১ বলে। তাঁর ইনিংসে ভর করেই আইরিশরা ৪৭.১ ওভার পর্যন্ত খেলে ২৭৬ রান করে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন