default-image

লন্ডনে প্রথমবারের মতো এলে মনে হবে, কী এক গোলকধাঁধায় পড়লাম! একটু অসতর্ক হলেই বিশাল শহরের অচেনা পথের প্রতিটি ধাপে ধাক্কা খাওয়ার আশঙ্কা। বিশ্বের অন্যতম আধুনিক-অতি উন্নত এ শহরে ‘ধাক্কা’ বলতে ঢাকার রাস্তায় গলি হারিয়ে আরেক গলিতে ঢুকে পড়ার মতো ভোগান্তিই শুধু নয়, ভুল করলে রীতিমতো মোটা অঙ্কের জরিমানা গোনার আশঙ্কা।

লন্ডনে এসে এক ধাঁধায় পড়েছে বাংলাদেশ দল। ধাঁধাটা অবশ্য পুরোনো। সেই পুরোনো প্রশ্নটাই আজ আরেকবার উঠল লন্ডনের পার্ক প্লাজা রিভার ব্যাংক হোটেলের সামনে—২ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তামিম ইকবালের সঙ্গে ওপেন করবেন কে—লিটন দাস না সৌম্য সরকার?

আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজটা দুর্দান্ত গেছে সৌম্য সরকারের। ৩ ম্যাচে ৩ ফিফটিতে ৬৪.৩৩ গড়ে ১৯৩ রান করে বাংলাদেশ দলের সেরা ব্যাটসম্যানই ছিলেন তিনি। অন্যদিকে লিটন যে দুটি ম্যাচ খেলেছেন, দুটিতেই ভালো করেছেন। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৭৬ রান করার পর কার্ডিফে ভারতের বিপক্ষে ৭৩। স্টিভ রোডস নিশ্চিত দ্বিধায়—তামিমের সঙ্গে কাকে পাঠাবেন ওপেন করাতে!

টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্ত যেটিই হোক, লিটন দাস তৈরি ব্যাটিং অর্ডারের যেকোনো পজিশনেই খেলতে, ‘সুযোগ পেলে অবশ্যই ভালো খেলার চেষ্টা করব। সুযোগের অপেক্ষায় থাকব। দলের জন্য যেকোনো কিছুই করতে প্রস্তুত। টিম ম্যানেজমেন্ট আমাকে যে দায়িত্ব দেবে চেষ্টা করব সেটা পালন করত। এত দিন ওপেনিং খেলেছি। এখন যে পজিশনেই দিক চেষ্টা করব সেখানেই ভালো করতে।’

আজ ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচের প্রথম ওভারটা করেছেন একজন স্পিনার। ক্রিকেট বিশ্বকাপের প্রথম বল এর আগে কখনোই কোনো স্পিনারকে দিয়ে করাননি কোনো অধিনায়ক। প্রথম ওভারে স্পিনার ব্যবহার করে সফলও হয়েছেন প্রোটিয়া অধিনায়ক, ইমরান তাহির দ্বিতীয় বলেই আউট করেছেন জনি বেয়ারস্টোকে। ইংলিশদের বিপক্ষে স্পিনার নিয়ে এসেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। বাংলাদেশের বিপক্ষেও একই কৌশলে এগোবে না বলেই ধারণা লিটনের, ‘কী মনে হয়, (আমাদের বিপক্ষেও) স্পিন দিয়ে শুরু করবে? মনে হয় না করবে। যদি করে বাংলাদেশ তো স্পিন খেলেই, এমন না যে খেলে না। যদি ওরা স্পিনার আনে আমরা খেলব।’

যদি শুরুতে স্পিনার ব্যবহার নাও করে, দক্ষিণ আফ্রিকা নিশ্চয়ই নতুন কোনো কৌশল নিয়ে আসবে বাংলাদেশের সামনে। আর শুরুতে প্রোটিয়াদের সে কৌশল ব্যর্থ করে দিতে হবে বাংলাদেশের ওপেনারদেরই। কথা হচ্ছে, দক্ষিণ আফ্রিকার বোলিং সামলাতে তামিমের সঙ্গে কে নামছেন ওপেনিংয়ে, জানতে আরেকটু অপেক্ষায় থাকতেই হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন