বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন সংস্করণ মিলিয়ে অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডারের রানসংখ্যা ৫০০২ (এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়া নারী দলের প্রথম ইনিংসে পেরি ব্যাটিং করতে নামেননি)। কারারা ওভালে সিরিজের একমাত্র টেস্টের আজ তৃতীয় দিনে ভারতের নারী দলের বিপক্ষে রেকর্ডটি গড়েন পেরি।

এই টেস্টে নামার আগে তিন সংস্করণ মিলিয়ে তাঁর উইকেটসংখ্যা ছিল ২৯৮। ভারতের প্রথম ইনিংসে ৭৬ রানে ২ উইকেট নিয়ে তিন সংস্করণ মিলিয়ে ৩০০ উইকেটের দেখা পান চলতি সময়ে নারীদের ক্রিকেটে অন্যতম সেরা এ অলরাউন্ডার।

পেরির এ অর্জন কতটা তাৎপর্যপূর্ণ, তা বুঝিয়ে দিচ্ছে ছেলেদের ক্রিকেটের পরিসংখ্যান। তিন সংস্করণ মিলিয়ে ছেলেদের ক্রিকেটে ন্যূনতম ৫০০০ রান ও ৩০০ উইকেটের তালিকা খুব একটা বড় নয়। ছেলেদের টেস্টের ১৪৪ বছরের ইতিহাসে মাত্র ১৭ জন ক্রিকেটার এই অর্জনের দেখা পেয়েছেন। ৬৬১৫ রান ও ৯১৬ উইকেট নিয়ে সবার ওপরে পাকিস্তানি কিংবদন্তি ওয়াসিম আকরাম।

শীর্ষ পাঁচে এরপর যথাক্রমে শন পোলক (৭৩৮৬ রান ও ৮২৯ উইকেট), চামিন্দা ভাস (৫১৪৭ রান ও ৭৬১ উইকেট), ড্যানিয়েল ভেট্টোরি (৬৯৮৯ রান ও ৭০৫ উইকেট) ও কপিল দেব (৯০৩১ রান ও ৬৮৭ উইকেট)। ছয়ে বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তিন সংস্করণ মিলিয়ে ১২২৯৬ রানের পাশাপাশি ৫৯৮ উইকেট নিয়েছেন সাকিব।

দক্ষিণ আফ্রিকার কিংবদন্তি অলরাউন্ডার জ্যাক ক্যালিস রানে (২৫৫৩৪ রান) সাকিবের চেয়ে বিস্তর ব্যবধানে এগিয়ে থাকলেও উইকেটসংখ্যায় (৫৭৭) পিছিয়ে সাতে। ইমরান খান, ইয়ান বোথাম, সনাথ জয়াসুরিয়াদের মতো কিংবদন্তিরা যথাক্রমে অষ্টম, নবম, দশম ও এগারোতম। এ তালিকায় ১৭তম ক্রিকেটার কিছুদিন আগে অবসর নেন টেস্ট ক্রিকেট থেকে—মঈন আলী (৫২২৮ রান ও ৩০৩ উইকেট)।

কারারা ওভালে ৮ উইকেটে ৩৭৭ রান তুলে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে ভারত। ব্যাটিংয়ে নেমে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১ উইকেটে ৫৬ রান তুলেছে অস্ট্রেলিয়া।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন