বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

শেন ওয়ার্নই যেমন। ১৭৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়া যেভাবে শেষের পাঁচ ওভারে জয়ের পথ খুঁজে নিল, শাহিন শাহ আফ্রিদি, হারিস রউফদের সামলে ফাইনালের পথ খুঁজে পেল, সেটাই মুগ্ধ করেছে কিংবদন্তি এই স্পিনারকে, ‘কী দুর্দান্ত একটা ম্যাচ! অস্ট্রেলিয়ার ছেলেদের অভিনন্দন, এভাবে জয়ের পথ খুঁজে বের করার জন্য। ডেভিড ওয়ার্নার, অ্যাডাম জাম্পাকে অভিনন্দন, আর ম্যাথু ওয়েড, যে অনবদ্য ছিল। খুব ভালো করেছ বন্ধু, আমাদের হাল্ক স্টয়নিসও দুর্দান্ত ছিল। কী দুর্দান্ত এক ফাইনালই না হবে অস্ট্রেলিয়া আর নিউজিল্যান্ডের মধ্যে!’


গোটা টুর্নামেন্টে দুর্দান্ত খেলা পাকিস্তানকে অবশ্য কৃতিত্ব দিয়েছেন যুবরাজ সিং, ‘বিশেষ একটা ইনিংস খেলল ম্যাথু ওয়েড! ক্যাচই ম্যাচ জেতায়, অনেক সময় ক্যাচ ফেলে দিলে অনেক বড় মূল্য চোকাতে হয়। পাকিস্তানের দুর্ভাগ্য, কিন্তু আমার মনে হয়েছে, তারা গোটা টুর্নামেন্টেই অসাধারণ খেলেছে। অস্ট্রেলিয়া আর নিউজিল্যান্ডকে অভিনন্দন, রোববারে একটা অসাধারণ ম্যাচের অপেক্ষা করছি!’

default-image

একই মতামত ইরফান পাঠানেরও, ‘ভালো চেষ্টা করেছে পাকিস্তান। আজ পর্যন্ত তোমরা অনেক ভালো খেলছিলে কিন্তু আজ অস্ট্রেলিয়া তোমাদের চেয়েও ভালো ছিল। অস্ট্রেলিয়াকে শুভকামনা!’

সুরেশ রায়না ওদিকে লিখেছেন, ‘কী চোখধাঁধানো এক ম্যাচই না দেখলাম আমরা! ফাইনালে ওঠার জন্য অস্ট্রেলিয়াকে অভিনন্দন। পাকিস্তান দলও অনেক ভালো খেলেছে।’ ওদিকে হরভজন সিং নিজের আনন্দ লুকোতে পারছিলেন না যেন, ‘অজি অজি অজি, ওয়ে ওয়ে ওয়ে! দুর্দান্ত, দুর্দান্ত ব্যাটিং ওয়েডের!’

হার্শা ভোগলের কাছে এই অস্ট্রেলিয়া দলটা নিয়মিত উন্নতি করে যাচ্ছে, ‘আপনি হয়তো ভেবেছিলেন, কেউ যদি ১৭৬ রানকে যথেষ্ট বানাতে পারে, সে দলটার নাম পাকিস্তান। কিন্তু এই অস্ট্রেলিয়ার দলটা টুর্নামেন্ট যত এগিয়েছে তত ভালো হয়েছে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন