ব্রাফেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই দলকে দ্বিতীয় সারির দল বলতে নারাজ।
ব্রাফেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই দলকে দ্বিতীয় সারির দল বলতে নারাজ।ছবি: প্রথম আলো

ওয়েস্ট ইন্ডিজের যে দলটা বাংলাদেশ সফরে এসেছে তাতে নেই বেশ কয়েকজন বড় তারকা। নিয়মিত অধিনায়ক জেসন হোল্ডার নেই, নেই কাইরন পোলার্ডও। এ ছাড়া শাই হোপ, শিমরন হেটমায়ার, নিকোলাস পুরান, ড্যারেন ব্রাভো, রোস্টন চেজ, এভিন লুইন, ফ্যাবিয়েন অ্যালেন, শেন ডাওরিচ, শেলডন কটরেলরা না থাকায় দলটিকে দ্বিতীয় সারির দলই বলছেন সবাই।

তবে হোল্ডারের জায়গায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলকে টেস্টে নেতৃত্ব দিতে যাওয়া ক্রেইগ ব্রাফেট কোনোমতেই মানতে চান না বাংলাদেশ সফরে আসা উইন্ডিজ দলটি দ্বিতীয় সারির। গতকাল জুমে আয়োজিত এক ভার্চ্যুয়াল সংবাদ সম্মেলনে ব্রাফেট বলেছেন, যথেষ্ট ভালো দল নিয়েই তারা বাংলাদেশে এসেছেন।

বার্বাডোজে জন্ম নেওয়া এই ওপেনার তাঁর দল নিয়ে গতকালই নেমেছেন অনুশীলনে। ঢাকায় পৌঁছে এর আগে তিন দিনের কোয়ারেন্টিন করতে হয়েছে ক্যারিবীয় দলকে। প্রথম দিনের অনুশীলনে গা গরমের পাশাপাশি ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে চট্টগ্রামে শুরু হওয়া প্রথম টেস্টের জন্যও নিজেদের প্রস্তুতিটা শুরু করেছেন তাঁরা। তবে যে দলে এত ভালো ক্রিকেটার, সে দলকে দ্বিতীয় সারির দল বলাটা একেবারে মেনে নিতে পারছেন না ব্রাফেট, ‘প্রথমেই বলতে চাই, আমি দারুণ একটা দল নিয়েই বাংলাদেশে এসেছি। এ দলে বেশ কয়েকজন দারুণ ক্রিকেটার আছেন। তাঁরা যথেষ্ট অভিজ্ঞ। প্রচুর ক্রিকেট খেলার অভিজ্ঞতা সেগুলো। কেউ কেউ হয়তো সে অর্থে অভিজ্ঞ নয়। আমি নিশ্চিত এই দলটির আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ভালো করার সব অনুষঙ্গই আছে, সামর্থ্য আছে।’

default-image
বিজ্ঞাপন

বেশ কয়েকজন তারকা ক্রিকেটার বাংলাদেশে না আসায় তরুণদের দলে ঢুকে নিজেদের প্রমাণের একটা সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। এঁদের মধ্যে আছেন কাভেন হজ ও শাইন মোজেলি। বুধবার ক্যারিবীয় কিংবদন্তি ও ১৯৭৫ ও ১৯৭৯ বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ক্লাইভ লয়েড এক খোলা চিঠিতে বাংলাদেশ সফরে তরুণ খেলোয়াড়দের সুযোগের পূর্ণ সদ্ব্যবহারের কথা বলেছেন।

টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি শুরু হবে ১১ ফেব্রুয়ারি। তবে টেস্ট সিরিজের আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ভাবতে হচ্ছে ওয়ানডে সিরিজ নিয়ে। যেটি শুরু হবে ২০ জানুয়ারি থেকে। ঢাকায় প্রথম দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় ওয়ানডে ২২ জানুয়ারি। সিরিজের শেষ ম্যাচটি হবে চট্টগ্রামে ২৫ জানুয়ারি।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন