অ্যাকশনে সাকিব আল হাসান। আজ ফিফটি তুলে নেওয়ার পথে
অ্যাকশনে সাকিব আল হাসান। আজ ফিফটি তুলে নেওয়ার পথেছবি: শামসুল হক

কাইল মায়ার্সের প্রথম বলেই ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। ভাগ্য ভালো, সময়মতো লাফটা দিয়ে বলটা মুঠোবন্দী করতে পারেননি এ পেসার। নইলে সাকিব মাইলফলকটির দেখা পেতেন না আজও, এমনকি নিজের এক রেকর্ডও টেনে নিতে পারতেন না পরের ধাপে।

ঢাকায় দ্বিতীয় ওয়ানডে শেষেই ক্ষণগণনা শুরু হয়েছিল। ক্রিকেটের তিন সংস্করণ মিলিয়ে দেশের মাটিতে সাকিবের সংগ্রহ ছিল ৫৯৯৪ রান। দশম ওভারে কিওন হার্ডিংকে ফাইন লেগ দিয়ে চার মেরে ৬০০০ রানের মাইলফলক টপকে যান সাকিব।

অবশ্য বাংলাদেশের মাটিতে তিন সংস্করণে ৬০০০ রান তোলা প্রথম ক্রিকেটার নন তিনি। মুশফিকুর রহিম ও তামিম ইকবালও ৬০০০ রান টপকেছেন। তবে সাকিব এক জায়গায় প্রথম।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের মাটিতে ক্রিকেটের তিন সংস্করণ মিলিয়ে ন্যূনতম ৩০০ উইকেট ও ৬০০০ রান তোলা প্রথম ক্রিকেটার সাকিব। এই মানদণ্ড চাইলে আরও অনেক নামিয়ে আনা যায়।

এমনকি ২০০০ রানে নামিয়ে আনলেও সাকিবের ধারেকাছে কাউকে পাওয়া যাবে না। কেননা, বাংলাদেশের মাটিতে উইকেট শিকারে দ্বিতীয় (২১৫) মাশরাফি বিন মুর্তজার রান ১৪৯৪। এই রান তিনি করেছেন দেশের মাটিতে।

default-image

এবার আসা যাক অন্য প্রসঙ্গে। পরিসংখ্যান বলছে, একটি নির্দিষ্ট দেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে (তিন সংস্করণ) ন্যূনতম ৬০০০ রান ও ৩০০ উইকেট নেওয়া প্রথম ক্রিকেটার সাকিব। আজ দেশের মাটিতে তিন সংস্করণ মিলিয়ে ৬০০০ রান টপকে নিজের পুরোনো এক রেকর্ড পরের ধাপে তুলেছেন তিনি।

পুরোনো বলতে নির্দিষ্ট একটি দেশে ন্যূনতম ৫০০০ রান ও ৩০০ উইকেট নেওয়া প্রথম ক্রিকেটারও ছিলেন সাকিব। কেননা, এই মানদণ্ডে সাকিবই একমাত্র ক্রিকেটার।

বাংলাদেশের মাটিতে তিন সংস্করণ মিলিয়ে সাকিবের শিকার ৩৩৬ উইকেট। চট্টগ্রামের আজ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডেতে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৫১ রান করে আউট হয়েছেন সাকিব।

তখন পর্যন্ত দেশের মাটিতে তিন সংস্করণ মিলিয়ে তাঁর মোট রান ৬০৪৫। নির্দিষ্ট একটি দেশে সাকিব ছাড়া আর কোনো ক্রিকেটারের ন্যূনতম ৫০০০ রান ও ৩০০ উইকেট নেওয়ার নজির নেই। এই তালিকায় দ্বিতীয় কিংবদন্তি অলরাউন্ডার কপিল দেব।

default-image

ভারতকে ’৮৩ বিশ্বকাপ জেতানো সাবেক অধিনায়ক নির্দিষ্ট একটি দেশে ন্যূনতম ৩০০ উইকেট পেয়েছেন ঠিকই কিন্তু পিছিয়ে আছেন রানে (৪১৫৮ রান)। তাঁর এই অর্জন ভারতের মাটিতে—৩১৯ উইকেট ও ৪১৫৮ রান। এরপর যথাক্রমে শন পোলক, স্টুয়ার্ট ব্রড, শেন ওয়ার্ন, হরভজন সিং, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, ব্রেট লি...।

সাবেক প্রোটিয়া পোলক তাঁর দেশ দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে তিন সংস্করণ মিলিয়ে ৩৫৫৬ রান তুলেছেন। উইকেটসংখ্যা ৪৪৫। পোলক থেকে এ তালিকায় অনেকেই সাকিবের চেয়ে উইকেটসংখ্যায় এগিয়ে। কিন্তু রানের দৌড়ে এগিয়ে থাকায় নির্দিষ্ট এই তালিকার শীর্ষে উঠেছেন সাকিব।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন